স্কুলঘর থেকে শিক্ষকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

656

আসানসোল: প্রাইমারি স্কুলের ক্লাসরুম থেকে উদ্ধার হল এক শিক্ষকের ঝুলন্ত দেহ। মৃত শিক্ষকের নাম কৃষ্ণেন্দু সিংহ (৩৬)। বাড়ি আসানসোল উত্তর থানার কন্যাপুর ফাঁড়ির সেনরেলের বি ব্লকে। শুক্রবার রাতে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে আসানসোলের কুলটি থানার সবনপুরে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কুলটির সবনপুর গ্রামের সবনপুর অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয় বা ফ্রি প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক ছিলেন কৃষ্ণেন্দু সিংহ। ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে সবনপুর অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসাবে দায়িত্ব নিয়ে আসেন তিনি। ওই শিক্ষক জেলার নির্বাচনি দপ্তরের বিএলও বা বুথ লেভেল অফিসারও ছিলেন। শুক্রবার সকালে সবনপুর অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটার কার্ডের আবেদন ও সংশোধনের কাজের জন্য তিনি আসেন। তারপর সন্ধ্যা পর্যন্ত বাড়ি না ফেরায় পরিবারের লোকেরা চিন্তায় পড়েন। তাঁরা সবনপুর গ্রামে খোঁজ করতে আসেন। রাত ১০টা নাগাদ স্কুলেও যান তাঁরা। স্থানীয়দের সাহায্য নিয়ে পরিবারের সদস্যরা স্কুলে এসে দেখেন স্কুলের দরজা খোলা। এরপর তাঁরা খোঁজ করতে গিয়ে স্কুলের দোতলায় দ্বিতীয় শ্রেণির ক্লাসরুমের ভিতরে ঝুলন্ত অবস্থায় শিক্ষককে দেখতে পান। খবর দেওয়া হলে কুলটি থানার চৌরঙ্গী ফাঁড়ির পুলিশ স্কুলে আসে। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে আসানসোল জেলা হাসপাতালে নিয়ে এলে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসক। শনিবার দুপুরে আসানসোল জেলা হাসপাতালে শিক্ষকের দেহের ময়নাতদন্ত করা হয়।

- Advertisement -

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, কৃষ্ণেন্দু সিংহ বেশ কিছুদিন ধরেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। তিনি কাজের জন্য চিন্তায় ছিলেন। বাড়িতে চুপচাপ থাকতেন নিজের কাজ নিয়ে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কুলটি থানার পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তের পরে পুলিশের অনুমান, কোনও কারণে মানসিক অবসাদ থেকে ওই শিক্ষক আত্মঘাতী হয়েছেন। পরিবারের তরফে এই ঘটনা নিয়ে পুলিশের কাছে কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। পুলিশ একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা করেছে।