ফুড ডেলিভারি বয়ের কাজ করছেন পাইলট!

219
প্রতীকী ছবি।

ব্যাংকক: করোনা সংক্রমণের জেরে বিমান চলাচল বন্ধ। ফলে উপার্জন নেই। এই পরিস্থিতিতে সংসার চালাতে ফুড ডেলিভারি বয়ের কাজ করছেন থাইল্যান্ডের এক পাইলট। নাকারিন ইন্তা নামে ওই পাইলট জানান, দেশে করোনা মহামারির জন্য বিমান চলাচল বন্ধ রয়েছে। তাই তিনি ও তাঁর অনেক সহকর্মী এই মুহূর্তে কর্মহীন। তাঁরা অনেকেই উপার্জনের বিকল্প পথ বেছে নিয়েছেন।

সংসার চালাতে অর্থ উপার্জনের জন্য নাকারিন নিজেও বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দেওয়ার কাজ করছেন। নাকারিন জানান, তিনি চার বছর একটি বিমান সংস্থায় কমার্শিয়াল পাইলট হিসেবে কাজ করেছেন। বর্তমানে বিমান পরিষেবা বন্ধ। সেকারণে তাঁকে ফুড ডেলিভারি বয়ের কাজ করতে হচ্ছে। একটি মেসেঞ্জার অ্যাপের মাধ্যমে তিনি এই কাজ করছেন।

- Advertisement -

৪২ বছর বয়সি নাকারিন বলেন, ‘আমি প্রথম কাস্টমারকে ঠিকঠাক খাবার ডেলিভারি দেওয়ার পর এক অন্যরকম অনুভূতি হয়েছিল। তখনই মনে হয়েছিল যে, কাজটি আমি করতে পারব। তবে আমি আমার সহকর্মী, ক্যাপটেন, কেবিন ক্রু সকলকেই খুব মিস করি। আর সবথেকে বেশি মিস করে আকাশে ভাসমান আমার অফিসকে।’ কবে বিমান চলাচল ফের শুরু হয়, এখন সেদিকেই রয়েছেন নাকারিন ও তাঁর সহকর্মীরা।

উল্লেখ্য, থাইল্যান্ডে এখনও পর্যন্ত ৩ হাজার ১৩৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তবে ২ হাজার ৯৯৩ জন ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সেখানে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫৮ জনের। অ্যাকটিভ কেস ৮৪টি।