জীবনদাতা রাজীবের প্রেমে জড়াল মিঠু!

227

বর্ধমান: রাজীব আর মিঠুর প্রেমে বাধা হননি পরিবারের কেউ। উলটে পরিবার-পরিজন সহ প্রতিবেশীরা সকলেই উপভোগ করেন রাজীব ও মিঠুর হৃদয়স্পর্শী প্রেম। তবে এই ‘প্রেম কাহিনী’ দুই তরুণ-তরুণীর নয়। এই প্রেম কাহিনী এক যুবক এবং এক শালিক পাখির।

পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বরের বালিজুড়ির বাসিন্দা রাজীব মণ্ডল। ছোট বয়স থেকেই পশু-পাখিদের প্রতি ভালবাসা তাঁর। মাস দুই আগে অসুস্থ অবস্থায় একটি শালিক পাখি নজরে আসে তাঁর। তড়িঘড়ি অসুস্থ শালিক পাখিটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যান। শুরু হয় সেবা-শুশ্রুষা। ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠে শালিক। এই সময়কালে স্নেহ-ভালবাসার বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে পড়েন রাজীব এবং শালিক পাখিটি। ভালোবেসে ওই শালিক পাখির নামকরণ করেন রাজীব। নাম দেন ‘মিঠু’।

- Advertisement -

রাজীবের কথায়, মিঠু হতে পারে একটা শালিক পাখি। কিন্তু নিজের উপলব্ধি দিয়ে তিনি বুঝেছেন ওরাও মানুষের মতো সবকিছু বুঝতে পারে। জীবন বাঁচানোর প্রতিদান দিতে জানে। আর তাই হয়তো মিঠু তাঁকে ছাড়া এক মূহুর্ত থাকতে চায় না। বাড়ি থেকে শুরু করে কর্মস্থল, হাট-বাজার সব জায়গাতেই রাজীবের সর্বক্ষণের সঙ্গী মিঠু। রাজীব জানিয়েছেন, মিঠুর খাওয়া-দাওয়ার কোনও ঝঞ্ঝাট নেই। ভাত, মুড়ি, বিস্কুট সব কিছুতেই সন্তুষ্ট মিঠু।

রাজীবের এহেন প্রেম কাহিনী ক্রমেই সকলেই নজর কাড়তে শুরু করেছে। মানুষ এবং পাখির এহেন ভালোবাসা চাক্ষুস করতে অনেকেই রাজীবের বাড়িতে ভীড় জমান।