২৮ জুলাই থেকে মাথাভাঙ্গা শহরে এক সপ্তাহের লকডাউন

মাথাভাঙ্গা: মাথাভাঙ্গা শহর সহ গোটা মহকুমায় লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। শনিবার পর্যন্ত মাথাভাঙ্গার মহকুমা শাসক জিতিন যাদবকে নিয়ে মহকুমায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০। শুক্রবার পর্যন্ত ৭ জনের সংক্রমণের পর শনিবার মাথাভাঙ্গা মহকুমায় নতুন করে ৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

আক্রান্তদের মধ্যে মাথাভাঙ্গা মহকুমা শাসক বেশ কিছুদিন ধরে নিভৃতবাসে রয়েছেন। ৭ জন মাথাভাঙ্গা শহরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাবু জগজীবন রাম কেন্দ্রীয় ছাত্রী নিবাসের সেফ হোমে রয়েছেন এবং মাথাভাঙ্গা বেসরকারি নার্সিংহোমের অ্যানাস্থেটিস এবং মাথাভাঙ্গা-১ ব্লকের পুলিশকর্মীকে কোচবিহারের চকচকার হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -

সংক্রমণ ঠেকাতে মাথাভাঙ্গা পুর এলাকায় এক সপ্তাহের জন্য লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিল মাথাভাঙ্গা কোভিড ১৯ টাস্ক ফোর্স। আগামী ২৮ জুলাই মঙ্গলবার থেকে ৩ আগস্ট সোমবার পর্যন্ত মাথাভাঙ্গা পুর এলাকার ১২টি ওয়ার্ডে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। শনিবার মাথাভাঙ্গা মহকুমা শাসকের অফিসে আয়োজিত কোভিড ১৯ টাস্ক ফোর্সের সভা শেষে মাথাভাঙ্গার বিধায়ক তথা রাজ্যের তপশিলি ও অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ মন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মন জানান, মাথাভাঙ্গা মহকুমা জুড়ে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। সংক্রমণ ঠেকাতেই লকডাইনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

এদিনের সভায় বিনয়বাবু ছাড়াও মাথাভাঙ্গা পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর চেয়ারম্যান লক্ষপতি প্রামাণিক, মাথাভাঙ্গা-১ ব্লকের বিএমওএইচ ডাঃ বিমল অধিকারী সহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। করোনা আক্রান্ত হওয়ায় মাথাভাঙ্গার মহকুমা শাসক এদিনের সভায় সরাসরি অংশ নেননি। তিনি ভিডিও কলিংয়ের মাধ্যমে অংশ নিয়েছেন বলে বিনয়বাবু জানান। বিনয়বাবু বলেন, শহরে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি মাথাভাঙ্গার মহকুমা শাসক ও শহরের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা শীতলকুচি বিডিও অফিসের কর্মী করোনা আক্রান্ত হওয়ায় টাস্ক ফোর্সের জরুরি সভায় মাথাভাঙ্গা শহরে এক সপ্তাহের লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

বিনয়বাবু আরও বলেন, রবিবার ফের মাথাভাঙ্গার মহকুমা শাসকের লালার নমুনা পরীক্ষা হবে এবং আমরা আশাবাদী তাঁর রিপোর্ট নেগেটিভ আসবে। লকডাউনের শুরু থেকে মাথাভাঙ্গার মহকুমা শাসক মাথাভাঙ্গা শহর সহ মহকুমাকে করোনা সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে সামনে দাঁড়িয়ে নেতৃত্ব দিয়ে সকলের প্রশংসা অর্জন করেছেন। তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন মাথাভাঙ্গাবাসী সেটা চাইছে।

পাশাপাশি মাথাভাঙ্গা শহর মঙ্গলবার থেকে আগামী এক সপ্তাহের লকডাউন কঠোরভাবে পালনের জন্য শহরবাসীর কাছে আবেদন জানান তিনি। এছাড়া পুলিশ-প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিনয়কৃষ্ণ বর্মন। মাথাভাঙ্গা মহকুমা শাসক জিতিন যাদব বলেন, করোনা পরিস্থিতি কতদিন থাকবে তা আমরা কেউ জানি না। তাই হোম ডেলিভারিতে জিনিসপত্র সংগ্রহ করার অভ্যেস সাধারণ মানুষ যত তাড়াতাড়ি গড়ে তুলতে পারবেন ততই মঙ্গল।