সবাইকে ছাপিয়ে ব্রিগেডে আকর্ষণের কেন্দ্রে আব্বাস সিদ্দিকি

236
ব্রিগেড সভায় বক্তব্য রাখছেন আব্বাস সিদ্দিকি

ওয়েবডেস্ক: ব্রিগেডে তাবড় নেতাদের অভাব ছিলনা। সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি থেকে ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল। অধীর চৌধুরি থেকে সূর্যকান্ত বিমান বসু। কিন্তু সবাইকে ছাপিয়ে গুরুত্ব পেলেন ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের নেতা আব্বাস সিদ্দিকি। আব্বাস মঞ্চে উঠতেই বক্তব্য থামিয়ে তাকে স্বাগত জানান সূর্যকান্ত মিশ্র।চেয়ার ছেড়ে উঠে দাঁড়ান সীতারাম ইয়েচুরিও।আব্বাসের হাতে হাত মেলান অধীর চৌধুরি, মহম্মদ দেলিম অধীর চৌধুরিরা। নিজের বক্তব্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূলকে বিজেপির বি টিম বলে আক্রমণ করেন আব্বাস। বলেন, ‘সব কিছু ভুলে যেখানে বামেরা প্রার্থী দেবে। সেখানেই আমরা সমর্থন জানাব।’তবে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট এখনও চূড়ান্ত হয়নি আব্বাসের দলের। তাই কংগ্রেসকে সমর্থন করার কথা মঞ্চ থেকে সরাসরি বলেননি আব্বাস।তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করতে কোনও কসুর করেননি আব্বাস সিদ্দিকি।

তাঁর তোপ, বাংলায় নারীদের অধিকার কেড়ে নিয়েছেন মমতা।সিভিক ভলান্টিয়ার থেকে মাদ্রাসা শিক্ষক সকলেই মমতার রাজত্বে কষ্টে আছেন। ২০২১ সালে মমতাকে ‘জিরো’ করে দেবেন বলেও এদিন ঘোষণা করেন আব্বাস সিদ্দিকি। তবে বামেদের সঙ্গে সমঝোতা চূড়ান্ত হওয়ার পর সাত দিন সময় পেলে ব্রিগেডে এদিনের ভিড়ের দ্বিগুন ভিড় করতে পারতেন বলেও জানান এই সংখ্যালঘু নেতা। এদিন ব্রিগেডের মঞ্চে আব্বাসের উপস্থিতি থেকেই পরিস্কার হারিয়ে যাওয়া সংখ্যালঘু ভোট ফিরে পেতে বাম নেতৃত্ব কতটা মরিয়া।

- Advertisement -