নয়াদিল্লি, ৮ অগাস্টঃ পাকিস্তানের মাটিতে অদম্য সাহসিকতার নিদর্শনের পুরস্কারস্বরূপ বীরচক্র সম্মান পাচ্ছেন বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। পরমবীর চক্র ও মহাবীর চক্রের পর সেনাবাহিনীর তৃতীয় সর্বোচ্চ সম্মান বীরচক্র। স্বাধীনতা দিবসে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিনন্দনকে এই সম্মানে ভূষিত করা হতে পারে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় পুলওয়ামায় প্রাণ হারান চল্লিশ জনেরও বেশি সিআরপিএফ জওয়ান। এক সপ্তাহ পর বালাকোটে পালটা হামলা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা। গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় বেশ কয়েকটি জঙ্গিঘাঁটি। এয়ার স্ট্রাইকের পরের দিন ভারতে হামলা চালাতে আসে পাক বায়ুসেনা। জবাবে অভিনন্দন তাঁর মিগ-২১ দিয়ে পাকিস্তানের উন্নত প্রযুক্তির এফ-১৬ যুদ্ধবিমানকে গুলি করে নামান। কিন্তু আকাশ যুদ্ধের সময় ভুল করে পাক সীমানায় ঢুকে পড়েন তিনি। অভিনন্দনের বিমান গুলি করে নামানো হয়। তিনি পাক সেনার হাতে বন্দি হন। কিন্তু কূটনৈতিক চাপে অভিনন্দনকে ফিরিয়ে দিতে বাধ্য হয় পাকিস্তান। পাক সেনার জেরার সামনে অটল সাহসিকতায় দাঁড়িয়ে অভিনন্দনের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। সেই সাহসিকতারই পুরস্কার পাচ্ছেন অভিনন্দন।