জেএনইউয়ের পর বিশ্বভারতী, হস্টেলে হামলার অভিযোগ এবিভিপির বিরুদ্ধে

0
186

শান্তিনিকেতন, ১৬ জানুয়ারিঃ দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় (জেএনইউ)-এর পর এবার শান্তিনিকেতন। রাতে বিশ্বভারতীর হস্টেলে ঢুকে তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ উঠল আরএসএস-এর ছাত্র সংগঠন এবিভিপির বিরুদ্ধে। অভিযোগ, সিনিয়র বয়েজ হস্টেলে এই হামলায় গুরুতর জখম হয়েছেন দুই পড়ুয়া। তাঁদের উইকেট, কাঠের তক্তা দিয়ে পেটানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় হামলার ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়তেই নিন্দার ঝড় উঠেছে। ঘটনার প্রতিবাদ করেছেন বহু প্রাক্তনী। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই দুই ছাত্র হাসপাতালে ভরতি। হস্টেলের পড়ুয়াদের অভিযোগ, বিষয়টি নিয়ে বিশ্বভারতীর নিরাপত্তা আধিকারিকের সাহায্য চাওয়া হলেও তিনি কোনো সাহায্য করতে চাননি। অন্যদিকে, হামলার কথা অস্বীকার করেছে এবিভিপি।

বিশ্বভারতীর পড়ুয়াদের সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সন্ধ্যায় এবিভিপির কয়েকজন সদস্য বিদ্যাভবন সিনিয়র বয়েজ হস্টেলে চড়াও হয়। কয়েক দিন আগে বিশ্বভারতী ক্যাম্পাসে বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্তকে ঘেরাওয়ের সময় হস্টেলের পড়ুয়ারা কেউ যুক্ত ছিল কিনা, তা জানার জন্য প্রত্যেককে জিজ্ঞাসাবাদ করে তারা। এরপর রাতে ফের একবার হস্টেলে চড়াও হয় তারা। সেই সময় অর্থনীতির ছাত্র স্বপ্ননীল মুখোপাধ্যা ও সাঁওতালি ভাষা বিভাগের ছাত্র দেবব্রত নাথকে হস্টেলের সামনে থেকে ধাওয়া করে উপাচার্যের বাংলোর দিকে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর দুজনকে বেধড়ক মারধর করে মুখে রুমাল বাঁধা কয়েকজন। পড়ুয়াদের অভিযোগ, সেই সময় বিশ্বভারতীর নিরাপত্তা আধিকারিক সুপ্রিয় গঙ্গোপাধ্যায় ঘটনাস্থলে গেলেও তিনি কোনো ব্যবস্থা নিতে অস্বীকার করেন, এমনকি আহত স্বপ্ননীলের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুমকি দেন বলে অভিযোগ পড়ুয়াদের। এমনকি দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেও আক্রমণকারীরা গিয়ে হুমকি, গালিগালাজ করে অভিযোগ।