সিআইডি হেপাজতে বোমা বিস্ফোরণে অভিযুক্ত, জানুন বিস্তারিত

116

বর্ধমান: ২০২০ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর আটপাড়া গ্রামে শিশু শিক্ষাকেন্দ্রে বোমা বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণে শিশু শিক্ষাকেন্দ্রটি কার্যত উড়ে যায়। বিস্ফোরণের খবর পেয়ে সিআইডির গোয়েন্দারা ঘটনাস্থলে যান। সিআইডির বোমা বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ করেন। এরপর চলতি বছরের ৪ এপ্রিল শেখ ফটিক নামক এক ব্যক্তির বাড়িতে বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণ স্থলে গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়। সেখানে বোমা মজুত করে বালি চাপা দিয়ে রাখা হয়েছিল বলে এলাকাবাসীরা আশঙ্কা প্রকাশ করেন। সেই ঘটনায় ফটিককে গ্রেপ্তার হয়। সেই শেখ ফটিককে শুক্রবার নিজের হেপাজতে নিল সিআইডি। সিজেএম ধৃতকে ৫ দিন সিআইডি হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন

সিআইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, ফটিক দীর্ঘদিন ধরে বোমার কারবারে জড়িত। খুব কম বয়সে বোমা বাঁধার সময়ে বিস্ফোরণে তার হাতের একাংশ  উড়ে যায়। বোমা বিস্ফোরণের সঙ্গে আর কে কে জড়িত তা জানার জন্যই তাকে হেপাজতে নিয়েছে সিআইডি।

- Advertisement -

সিআইডির এক অফিসার বলেন, ‘ধৃত দীর্ঘদিন ধরে বোমার কারবারে জড়িত। বিভিন্ন জায়গায় সে বোমা সরবরাহও করে। এলাকায় অশান্তি পাকানোর জন্য শিশু শিক্ষাকেন্দ্রের বাথরুমে বোমা মজুত করে রাখা হয়েছিল। ঠিকভাবে না রাখার ফলে এবং প্রচণ্ড তাপে সম্ভবত ওই বোমাগুলি ফেটে যায়। ধৃতকে হেপাজতে নিয়ে বোমার কারবারে তার সঙ্গে আরও কারা জড়িত তা জানার চেষ্টা করা হবে। কোথায় কোথায় সে বোমা সরবরাহ করেছে তাও জানা হবে।‘