নয়াদিল্লি, ২৭ জানুয়ারিঃ আধার গেরোয় আটকে গেল রেশন। মাসখানেক হতে চলল প্রায় ২৬ হাজার মানুষ ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়েও রেশন না নিয়েই তাঁদের ফিরে যেতে হচ্ছে।

১ জানুয়ারি থেকে দিল্লির ২২২৫ টি রেশন দোকানে নতুন ইলেকট্রনিক পিওএস মেশিন বসেছে। রেশন আনতে গেলে সেই মেশিনের মাধ্যমে চলছে প্রত্যেকের আঙুলের ছাপের পরীক্ষা। বিপত্তি বাধছে তখনই যখন আধার কার্ডের সঙ্গে আঙুলের ছাপ মিলছে না। ফলে বিপদে পড়েছেন বহু মানু্ষ। প্রায় কয়েকশো পরিবারের আধার কার্ডে দেওয়া আঙুলের ছাপের সঙ্গে কোনও মিল পাওয়া যায়নি। ফলে এই নিয়ম চালু হওয়ার পর থেকে রেশন পাননি ২৬ হাজার ২০১ জন মানুষ। তবে দিল্লি সরকার জানিয়েছে, নতুন এই যন্ত্রে আঙুলের ছাপ মেলেনি মাত্র ২ শতাংশ মানু্যের। সরকারের তরফ থেকে আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল ১৫ জানুয়ারির মধ্যে আইরিস স্ক্যান বা চোখের মনি পরীক্ষা করার যন্ত্র বসানো হবে রেশন দোকানগুলিতে, কিন্তু এখনও পর্যন্ত সেব্যাপারে কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। এই ভুক্তভোগীদের মধ্যে এমন অনেকে আছেন যাঁদের মাসিক আয় ৫ হাজার টাকারও কম।