ষোলো আনা বাঙালি-খানায় মধ্যাহ্নভোজ সারলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

2030

বাঁকুড়া: ষোলো আনা বাঙালি-খানায় মধ্যাহ্নভোজসারলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বাঁকুড়ার রবীন্দ্রভবনে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলার কার্যকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক সেরে বৃহস্পতিবার মধ্যাহ্নভোজ সারতে আদিবাসী গ্রাম চতুরডিহিতে হাজির হন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ধামসা, মাদল মাজিয়ে স্বাগত জানায় স্থানীয় আদিবাসী সমাজ বিভীষণ হাঁসদার বাড়িতে ঢোকার মুখে পরিবারের মহিলারা তাঁকে বরণ করে নেন। শাঁখ বাজিয়ে, উলুর সঙ্গে স্লোগান ওঠে, ‘বন্দেমাতরম’‌।

ষোলো আনা বাঙালি-খানায় মধ্যাহ্নভোজ সারলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

- Advertisement -

এদিকে তাঁর জন্য একাধিক নিরামিষ পদের ব্যবস্থা করে রেখেছিলেন হাঁসদা পরিবার। কী ছিল না তাঁর মেনুতে? মেনুতে ছিল ভাত, রুটি, বিউলির ডাল, আলুভাজা, আলুপোস্ত, পোস্তর বড়া, চাটনি, পাপড়, মিষ্টি ইত্যাদি। অনেকক্ষণ ধরে বেশ আয়েশ করেই খান তিনি। ২–৩টি রুটির পাশাপাশি হাত দিয়ে মেখে ভাতও খান। তবে মিষ্টি অর্থাৎ বাংলার রসগোল্লা এদিন খাননি বর্ষীয়ান ওই রাজনীতিবিদ। মিষ্টি না খেলেও বাংলার মেয়ের ‘‌মিষ্টি’‌ যত্ন তিনি পেলেন।

ষোলো আনা বাঙালি-খানায় মধ্যাহ্নভোজ সারলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal Indiaখাওয়াদাওয়া শেষে উপরি পাওনা হিসেবে তিনি ‘‌মায়ের ভালবাসা’‌ও পেয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এরপর প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন বিভীষণ হাঁসদার পরিবারকে। সুযোগ পেলে আবারও আসবেন, মিলল এমনও প্রতিশ্রুতি।

তাঁর পাশে বসেই মধ্যাহ্নভোজ সারতে দেখা গেল বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়, রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ, দলের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী সহ-দলের অন্য নেতাদের। অমিত শা’র একেবারে পাশে বাড়ির কর্তা বিভীষণ হাঁসদাকে বসেছিলেন।ষোলো আনা বাঙালি-খানায় মধ্যাহ্নভোজ সারলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

খাওয়া–দাওয়া শেষে ‘‌মায়ের মতো’‌ যত্ন–নেওয়া ওই তরুণীকে ডেকে হাতে ভালাবাসা স্বরূপ ৫০০ টাকার একটা নোট দেন মন্ত্রী অমিত শা। মন্ত্রীকে প্রণাম করে তাঁর আশীর্বাদ নেন ওই তরুণী। এর পর বাড়ির কর্তা বিভীষণবাবুকে উত্তরীয় পরিয়ে ধন্যবাদ জানান মন্ত্রী। ওই পরিবার ও গ্রামবাসীদের সঙ্গে কিছুটা সময় কাটিয়ে ফের বাঁকুড়া রবীন্দ্রভবনের উদ্দেশে বেরিয়ে পড়েন অমিত শাহ।