অসহায় আদিবাসী পরিবারের পাশে প্রশাসন

87

আলিপুরদুয়ার: আংশিক লকডাউনের জেরে দুবেলা খাবার জুটছে না আদিবাসী পরিবারগুলোর। শিশুরা অপুষ্টিতে ভুগছে। র‍্যাশনের চাল, আটা কিছুই নেই তাদের। র‍্যাশন কার্ড, ভোটার কার্ড, জব কার্ড, আধার কার্ড কিছু পায়নি আদিবাসী পরিবারগুলো। আলিপুরদুয়ার-২ ব্লকের বিভিন্ন গ্রামে প্রায় ১৫ বছর ধরে বসবাস করছে অসহায় আদিবাসী পরিবারগুলি। অতীতে অশান্ত অসমের বিভিন্ন বনবস্তি এলাকা থেকে এই আদিবাসী পরিবারগুলো তাদের প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে নিজেদের সবকিছু ফেলে আশ্রয় নিয়েছিল আলিপুরদুয়ারের বিভিন্ন গ্রামে। নিজেদের ঘরে ফেরার কথা একবারও ভাবেননি।

আদিবাসী বাসিন্দাদের অনেকেই বারবার আলিপুরদুয়ারের স্থানীয় পঞ্চায়েত ও প্রশাসনের দ্বারস্থও হয়েছেন রেশন কার্ড ও ভোটার কার্ড করার জন্য। কিন্তু তাদের আবেদনে প্রশাসনের কোনও সাড়া মেলেনি। সরকারি সমস্ত সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত এই মানুষগুলোর কেউ লোকের খড়ের গাদায়, আবার কেউ রেল লাইনের ধারে, কেউ খোলা স্থানে তাঁবু খাটিয়ে বিভিন্ন জায়গায় মাথা গুঁজে রয়েছে। জনমজুরের কাজ করে তাদের সংসার চললেও সেটাও বেশ কিছুদিন ধরে বন্ধ থাকায় চরম অনটনে পড়েছে আদিবাসী প্রায় ৩০টি পরিবার। পানীয় জল, শৌচাগার বা একটা ছোট মাথা গোঁজার ঠিকানা এদের কাছে যেন স্বপ্নের মত। আদিবাসী ওই পরিবারগুলির দুর্দশার কথা শোনামাত্রই রাজ্যের অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী বুলু চিক বরাইক জেলা প্রশাসনকে তাদের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।

- Advertisement -