রায়গঞ্জে ভেজাল খাবারের রমরমা কারবার

145

রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জে ভেজাল ঘি, ভোজ্যতেল, বোতলবন্দী পানীয় জল থেকে শুরু করে ক্ষতিকর রং দিয়ে তৈরি বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রীর কারবার অবাধে চলছে। অভিযোগ, প্রশাসনিক নজরদারির অভাবে একশ্রেণির কারবারি দিনের পর দিন এই কারবার চালিয়ে যাচ্ছে। এদিকে চারটি জেলার দায়িত্বে একজন ফুড সেফটি অফিসার থাকায় নিয়মিত নজরদারি চালানোতেও সমস্যা হচ্ছে। এই বিষয়ে উত্তর দিনাজপুরের ফুড সেফটি অফিসার বিজয় কুমাই জানিয়েছেন, চারটি জেলার দায়িত্বে থাকায় কাজে কিছু সমস্যা হচ্ছে। তবে শীঘ্রই উত্তর দিনাজপুরে কয়েকজন ফুড সেফটি অফিসার কাজে যোগ দেবেন। ফলে নজরদারি বাড়ানো সম্ভব হবে।

রায়গঞ্জের বিস্তীর্ণ এলাকায় ভেজাল তেল, ঘি, পানীয় জলের কারবার সক্রিয় রয়েছে। অভিযোগ, জেলার গ্রামীণ এলাকার পাশাপাশি বিহারের বিস্তীর্ণ এলাকায় ভেজাল তেল সরিষার তেল বলে খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে। বেশি লাভের আশায় একশ্রেণির মানুষ এই ধরণের কারবার চালিয়ে যাচ্ছেন। পাশাপাশি বোতলবন্দি পানীয় জলের কারবারও রমরমিয়ে চলছে। কিছু সংস্থা নিয়ম মেনে সেই পানীয় জল তৈরি করলেও বহু কারবারি নিয়মের তোয়াক্কা না করে ২০ লিটার জারে জল ভরে বাজারে বিক্রি করছে। রায়গঞ্জ শহরে ভেজাল ঘিয়ের কারবারও জাঁকিয়ে বসেছে। সস্তায় ঘি পাওয়ায় অনেকেই নিম্নমানের ঘি কিনছেন। এছাড়াও কিছু মিষ্টি ব্যবসায়ী ক্ষতিকর রং ব্যবহার করে মিষ্টি তৈরি করে হাটে-বাজারে বিক্রি করছেন। ওয়েস্ট দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্সের জেলা সম্পাদক শংকর কুণ্ডুর বক্তব্য, ভেজাল ও অস্বাস্থ্যকর খাবারের কারবার যারা করে সংগঠন তাদের সমর্থন করে না। প্রশাসন নজরদারি বাড়িয়ে এই কারবার বন্ধ করুক।

- Advertisement -