টোকিওয় পদকের আশা বাড়ল মীরাবাই-ভিনেশের

নয়াদিল্লি : টোকিও অলিম্পিক থেকে উত্তর কোরিয়া নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে। ফলে ভারতের দুই ক্রীড়াবিদ মীরাবাই চানু ও ভিনেশ ফোগতের পদক জয়ে সম্ভাবনা আরও উজ্জল হল। অন্যদিকে, টোকিওগামী অ্যাথলিটদের টিকাকরণ নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রককে চিঠি দিয়েছে ভারতীয় অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন।

মঙ্গলবার উত্তর কোরিয়ার ক্রীড়ামন্ত্রক জানিয়েছে, করোনার কথা মাথায় রেখে তারা এবার অলিম্পিকে অংশ নেবে না। সম্প্রতি দেশের ক্রীড়ামন্ত্রী কিম ইল গুকের সঙ্গে অলিম্পিক কমিটির কর্তাদের আলোচনায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদিও অলিম্পিক আয়োজক কমিটির দাবি, বিষয়টি নিয়ে উত্তর কোরিয়া সরকারিভাবে এখনও কিছু জানায়নি। পাশাপাশি প্রতিবেশী দেশের এমন সিদ্ধান্তে হতাশ দক্ষিণ কোরিয়াও।

- Advertisement -

তবে এই সিদ্ধান্তে সুবিধা হবে ভারতীয় অ্যাথলিটদের। যেমন, ভারোত্তোলনে মীরাবাইয়ে বর্তমান বিশ্ব র‌্যাংকিং ৪। ৪৯ কেজি বিভাগে চিনের দুই ও উত্তর কোরিয়ার এক অ্যাথলিট তাঁর আগে রয়েছেন। এই তিনজনই ২০১৯ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম তিনে ছিলেন। অলিম্পিকে চিন একটি কোটা পেয়েছে। ফলে ২০১৯-এ চতুর্থ হওয়া মীরাবাইয়ের পদক জয়ের সম্ভাবনা অনেকটাই বাড়ল। সুবিধা পাবেন কুস্তিগির ভিনেশও। ২০১৯ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ৫৩ কেজি বিভাগে ব্রোঞ্জ পান তিনি। এই বিভাগে উত্তর কোরিয়ার পাক ইযং মি ২০১৮ এশিয়ান গেমস ও তিনটি বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জিতেছেন। তিনি না থাকায় ভিনেশের পদক জয়ের সম্ভাবনা বাড়বে।

ভারতের আরও দুই মহিলা কুস্তিগির সীমা বিসলা (৫০ কেজি) ও অংশু মালিকের (৫৭ কেজি) অলিম্পিকের টিকিট পাওয়ার সম্ভাবনাও বাড়ল উত্তর কোরিয়ার এই সিদ্ধান্তে। ৯ এপ্রিল থেকে কাজাখস্তানে এশিয়ান কোয়ালিফায়ারে নামবেন তাঁরা। এই দুই বিভাগে উত্তর কোরিয়ার আথলিটদের দাপট আছে। অলিম্পিক থেকে নাম তুলে নেওয়ায় কোয়ালিফায়ারে নামতে পারবেন না সেদেশের অ্যাথলিটরা।