পাঁচদিন ধরে রাস্তায় পড়ে, বৃদ্ধাকে কোলে তুলে হাসপাতালে নিয়ে গেলেন আইসি

161

হরিশ্চন্দ্রপুর: দীর্ঘ পাঁচদিন ধরে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার হাইস্কুল পাড়ায় রাস্তার ধারে পড়েছিলেন এক ৫৫ বছরের অসুস্থ প্রৌঢ়া। কিন্তু তাঁর বাড়ির কোনও লোক খোঁজ করতে আসেনি। এদিকে নিজেও তিনি তার নাম ঠিকানা বলতে পারছেন না। পাড়ার লোকেরা দুই-বেলা গিয়ে খাওয়ার এবং জল দিয়ে আসছিলেন। দেখা মেলেনি স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য বা পঞ্চায়েত প্রধানেরও। যদিও এলাকাবাসীর দাবি, তারা ঘটনাটি জানতেন। অবশেষে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার আইসি সঞ্জয়কুমার দাস সেখানে গিয়ে বৃদ্ধার মুখে খাবার তুলে দেন। ওনার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেন তিনি। তারপর প্রায় ওই অসহায় বৃদ্ধাকে আইসি নিজেই কোলে তুলে গাড়িতে উঠিয়ে হাসপাতালে পথে রওনা দেন। সেখানেই আপাতত ওই বৃদ্ধার ঠাঁই হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত ওই প্রৌঢ়ার নাম-ঠিকানা উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছে। এই ঘটনার জেরে আরেকবার হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশের এই মানবিক রূপ সামনে আসল। ওই ভবঘুরে প্রৌঢ়ার বাড়ি কোথায় তার খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ। সঞ্জয় কুমার দাস বলেন, ‘আমরা জানতে পারি এরকম একজন মহিলা আশ্রয়হীন ভাবে পড়ে আছে। এসে দেখি উনি কিছু বলতে পারছেন না। হাসপাতালে উনার চিকিৎসা এবং সেবা-শুশ্রূষার ব্যবস্থা করেছি। সুস্থ হলে ওনাকে বাড়ি পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।’ হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালের চিকিৎসক ছোটন মণ্ডল বলেন, ‘ওই বৃদ্ধা মানসিক ভারসাম্যহীন হলে সেই চিকিৎসার পরিকাঠামো গ্রামীণ হাসপাতালে নেই। সেক্ষেত্রে অন্য জায়গায় পাঠাতে হবে।’

- Advertisement -