ব্ল্যাক ও হোয়াইটের পর এবার ইয়েলো ফাঙ্গাসের হদিস

141
ছবি: সংগৃহীত

লখনউ: একেই করোনা পরিস্থিতিতে জেরবার দেশ। তার ওপর আতঙ্ক বাড়াচ্ছে ব্ল্যাক ও হোয়াইট ফাঙ্গাস। এর মাঝেই এবার নতুন করে উদ্বেগ বাড়াল ইয়েলো ফাঙ্গাস। উত্তর প্রদেশের গাজিয়াবাদে ইয়েলো ফাঙ্গাসের হদিস মিলল। ব্ল্যাক ও হোয়াইটের থেকেও এটি বিপজ্জনক হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ইয়েলো ফাঙ্গাসের লক্ষণ হল অসলতা, ওজন হ্রাস পাওয়া, কম খিদা পাওয়া অথবা খিদা না পাওয়া। ইয়েলো ফাঙ্গাসের সংক্রমণ যদি গুরুতর হয় সেক্ষেত্রে ফোঁড়া বা ঘা থেকে পুঁজ বের হতে পারে। এমনকি অপুষ্টি, অর্গান ফেলিওর বা জড়ানো চোখের সমস্যা দেখা দিতে পারে। এই রোগ শরীরের অভ্যন্তরে শুরু হয়। তাই উপরোক্ত কোনও উপসর্গ দেখা দিলেই সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসা শুরু করানো প্রয়োজন। খারাপ স্বাস্থ্যবিধি (হাইজিন) মূলত ইয়েলো ফাঙ্গাস সংক্রমের কারণ। তাই বাড়ির চারপাশ যতটা সম্ভব সবসময় পরিষ্কার রাখা প্রয়োজন। পুরোনো খাবার ফেলে দেওয়া এবং যাতে ব্যাকটেরিয়া বা ফাঙ্গাস না জন্মায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।বাড়ির আর্দ্রতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, অতিরিক্ত আর্দ্রতা ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাকের বৃদ্ধির পক্ষে উপযুক্ত পরিবেশ। ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ পর্যন্ত আর্দ্রতা সঠিক রাখার কথাও বলা হয়েছে। সোমবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত ১৮টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে মিউকরমাইকোসিসের ৫,৪২৪টি ঘটনা সামনে এসেছে। এর মধ্যে ৪,৫৫৬ জনই করোনায় সংক্রামিত হয়েছেন। ৫৫ শতাংশের ডায়াবেটিস রয়েছে।

- Advertisement -