রাজ্যে ফের বিজেপিকর্মী খুন, অভিযোগের তির তৃণমূলের বিরুদ্ধে

441

তমলুক: রাজ্যে ফের বিজেপিকর্মী খুনে চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুকে। অভিযোগের তির স্থানীয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। বিজেপিকর্মী দীপক মন্ডলকে বোমার আঘাতে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ। এই খুনের ঘটনায় শনিবার গভীর রাতের ঘটনার পরও রবিবারেও পূর্ব মেদিনীপুরের ময়না বাকচা গ্রাম পঞ্চায়েতের খিদিরপুর থমথমে। যদিও এই ঘটনায় খবর লেখা পর্যন্ত কেউই গ্রেপ্তার হয়নি। তবে, কে বা কারা হামলার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে সে বিষয়ে দতন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ, বেশ কয়েকজন মোটর বাইক চড়ে আসা যুবক দীপক মণ্ডলের পথ আটকায়। তাঁকে বেধড়ক মারধর করে। এরপর মৃত্যু নিশ্চিত করতে তাঁকে লক্ষ্য করে বোমাও ছোঁড়া হয়। সেই বোমার আঘাতেই ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় দীপকের দেহ। হামলা চালানোর পর ঘটনাস্থল ছেড়ে চম্পট দেয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

- Advertisement -

এদিকে এই খুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে অভিযোগ ও পালটা অভিযোগের রাজনীতি শুরু হয়েছে। বিজেপির তমলুক সাংগঠনিক জেলা সভাপতি নবারুণ নায়েক দীপক মন্ডল খুনের জন্য তৃণমূল নেতাকর্মীদের দায়ী করেছেন। যদিও খুনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। ময়না ব্লক তৃণমূল সভাপতি তথা ময়না পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি সুব্রত মালাকার বলেন, “নিজেরাই ফুর্তি করতে গিয়ে গণ্ডগোল করেছে। ওদের কাছে বোমা ছিল। ওরাই খুন করেছে। ময়না বরাবরই উপদ্রুত এলাকা। এর আগেও একাধিকবার গণ্ডগোল হয়েছে। আমাদের শতাধিক কর্মী সমর্থক বাড়ি ফিরতে পারছেন না। ময়নাকে সন্ত্রাসমুক্ত করার দাবি জানাই।” জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র মধুরিমা মণ্ডল বলেন, “এই ঘটনায় তৃণমূল যুক্ত নয়। বিজেপিই দলীয় কর্মী খুনে জড়িত।”