চ্যাংরাবান্ধা, ২৯ অগাস্ট: নিরাপত্তার স্বার্থে সীমান্তে নজরদারি বাড়িয়েছে বিএসএফ কর্তৃপক্ষ। যার জেরে বৈদেশিক বাণিজ্যেও প্রভার পড়ছে। কোচবিহার জেলার চ্যাংরাবান্ধা বৈদেশিক বাণিজ্য কেন্দ্রে  এমনই অভিযোগ আনলেন বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা। বৃহস্পতিবার বাণিজ্যের মন্থর গতি নিয়ে তাঁরা স্থানীয় শুল্ক কর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন শুল্ক দপ্তরের চ্যাংরাবান্ধা শাখার সুপারিনটেনডেন্ট কপিল বাইন, ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট এলাকার দায়িত্বে থাকা বিএসএফ কমান্ডার হরপল সিং প্রমুখ।
ব্যবসায়ীদের একাংশের  অভিযোগ, বিএসফের তরফে পণ্যবাহী ট্রাকের বিভিন্ন বিষয় খতিয়ে দেখতে মাঝে মধ্যেই অনেক সময় লেগে যাচ্ছে। যার কারণেই বৃহস্পতিবার সকাল এগারটা অবধি তিনঘন্টায় ভারত থেকে মাত্র ৮ ট্রাক পণ্য বাংলাদেশে পাঠানো সম্ভব হয়েছে। চ্যাংরাবান্ধা কাস্টমস ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়ার্ডিং এজেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক বিকাশ সাহা এদিন বলেন, ‘সীমান্তে বিএসএফ কর্তৃপক্ষের কারণে মাঝে মধ্যেই বৈদেশিক বাণিজ্য কমে যাচ্ছে’। এপ্রসঙ্গে চ্যাংরাবান্ধা কাস্টমস সুপারিনটেনডেন্ট কপিল বাইন বলেন, ‘বাণিজ্যের গতি নিয়ে এদিন ব্যাবসায়ীদের পক্ষ থেকে অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছিল।বিষয়টি নিয়ে সকালে সংশ্লিষ্ট বিএসএফ কর্তাদের সাথে আলোচনাও করা হয়েছে’। ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট এলাকার দায়িত্বে থাকা বিএসফের কোম্পানি কমান্ডার হরপল সিং অবশ্য জানান তাঁরা নিয়ম মেনেই নিরাপত্তা সংক্রান্ত দায়িত্ব পালন করছেন।