ফালাকাটা, ৭ অগাস্টঃ বুধবার ফালাকাটা-সোনাপুর ৩১ ডি জাতীয় সড়কে চরতোর্ষা নদীতে পাকা সেতুর কাজ অবিলম্বে শুরু করার দাবিতে সিপিআইএম সমর্থকরা পুরোনো সেতুর পাশেই তিন ঘন্টা অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করল। সিপিআইএমের আলিপুরদুয়ার জেলা সম্পাদক মৃণাল রায়, গণতান্ত্রিক যুব ফেডারেশনের জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য বাপন গোপ, সংগঠনের ফালাকাটা এরিয়া কমিটির সদস্য জয়ন্ত সরকার, নৃপেন খাসনবিশ, মতিলাল দাস প্রমুখ সেখানে বক্তব্য রাখেন।

এদিন বিকেল তিনটা থেকে প্রায় তিন ঘন্টা এই অবস্থান বিক্ষোভ চলে। এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের বন্যায় চরতোর্ষা কাঠের সেতু ভেঙ্গে গিয়েছিল। এরপর থেকেই তার পাশে থাকা হিউম পাইপের ডাইভারশন দিয়ে যানবাহন যাতায়াত করছে। তবে গত বর্ষার মতো এবারেও বেশ কয়েকবার জলের তোড়ে ডাইভারশন ভেঙ্গে যাওয়ায়, ফালাকাটা ও আলিপুরদুয়ারের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। ব্যবসায়ীরাও আর্থিক দিক থেকেক্ষতি হচ্ছেন। এই সড়কেই চার লেনের মহাসড়ক তৈরি হচ্ছে। তাই এনএইচএআই চরতোর্ষায় পাকা সেতু তৈরি করবে।

ইতিমধ্যেই ওই সেতু তৈরি করা নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে ব্যাপক রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে এদিনের অবস্থান কর্মসূচিতে বাম নেতারা তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির কড়া সমালোচনা করেন।

সিপিআইএমের জেলা সম্পাদক মৃনাল রায় জানিয়েছেন, কংগ্রেস ও বিজেপির রাজনৈতিক চাপানউতরের জন্য প্রায় দুই বছর থেকে হাজার হাজার সাধারণ মানুষ ভোগান্তির শিকার। এধরনের ঘটনা অবিলম্বে বন্ধ হওয়া উচিত। রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেস সরকার এবং কেন্দ্রের ক্ষমতায় থাকা বিজেপি সরকারের জনপ্রতিনিধিদের দ্রুত পাকা সেতু তৈরির জন্য তৎপর হওয়ার দাবি জানান তিনি।