নন্দীগ্রামে তৃণমূলের পার্টি অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

165

নন্দীগ্রাম: ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল নন্দীগ্রাম। তৃণমূলের পার্টি অফিসে ভাঙচুর, লুঠের অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়।

মঙ্গলবার গভীর রাতে নন্দীগ্রামের মহম্মদপুরে তৃণমূলের বুথ পার্টি অফিসে ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। সেইসময় আশেপাশের মানুষ বেরিয়ে এলে তারা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। তৃণমূল নেতা শেখ সুফিয়ান বলেন, ‘শান্ত নন্দীগ্রামকে অশান্ত করার চেষ্টা করছে সাম্প্রদায়িক দল বিজেপি। এই ঘটনায় নন্দীগ্রাম থানায় লিখিত অভিযোগে দায়ের করা হয়েছে।’ যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে নন্দীগ্রামের বিজেপি নেতা প্রলয় পাল। ঘটনার তদন্ত করছে নন্দীগ্রাম থানার পুলিশ।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, ৭ জানুয়ারি শহিদ দিবসে শহিদ বেদিতে মাল্য দান করবেন তৃণমূল রাজ্য নেতৃত্ব ও বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। ৮ তারিখ নন্দীগ্রামে বিজেপির সভার ডাক দিয়েছে বিজেপির প্রধান বক্তা শুভেন্দু অধিকারী। প্রাক্তন মন্ত্রী তথা নন্দীগ্রামের প্রাক্তন বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে মেদিনীপুরে রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়েছে। তাঁকে বিশ্বাসঘাতক তকমা দিয়েছে তৃণমূল। গতকাল নন্দীগ্রামের ভুতো মোড়ে শুভেন্দু অধিকারীর পদযাত্রায় অংশ নিতে আসা তাঁর অনুগামী ও বিজেপি কর্মীদের ওপর ইট, পাথর নিয়ে হামলা করা হয় বলে অভিযোগ। টোটো, গাড়িও ভাঙচুর করা হয়। হামলায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা হামলা চালিয়েছে। শুভেন্দু অধিকারী টেঙ্গুয়া মোড়ের দলীয় কার্যালয়ে বসে ঘটনার বিষয়ে খোঁজ নেন। পরে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘হামলার ফল ভুগতে হবে। তবে জনগণের আন্দোলনের মধ্যে দিয়েই এর জবাব দেওয়া হবে।’ এদিকে মারধরের প্রতিবাদে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখান শুভেন্দু-অনুগামীরা।