দিনহাটা, ১৬ জুলাই : প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় ঘর দেওয়ার বিনিময়ে দিনহাটা পুরসভার বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ উঠল। অভিযোগ, এই যোজনায় প্রতি উপভোক্তার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা করে অতিরিক্ত নেওয়া হচ্ছে। কাউন্সিলারদের অনেকে ঘরের তালিকা তৈরির ক্ষেত্রেও উপভোক্তাদের কাছ থেকে কাটমানি নিচ্ছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। এই টাকা ফেরতের দাবিতে বিরোধী  সিপিএম ও বিজেপি আন্দোলনে নামতে চলেছে। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সিপিএম বুধবার পুরসভার সামনে বিক্ষোভ দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পুর কর্তৃপক্ষ অবশ্য অভিযোগ অস্বীকার করেছে। চেয়ারম্যান উদয়ন গুহ বলেন, পুরসভার বিরুদ্ধে ভিত্তিহীনভাবে অভিযোগ তোলা হচ্ছে।

দিনহাটা পুরসভা সূত্রে খবর,  প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় পুর এলাকার বাসিন্দাদের পাকাঘর দেওয়া হচ্ছে। শহরে ইতিমধ্যেই এক হাজারেরও বেশি ঘর তৈরি হয়েছে। আরও ঘর তৈরি হচ্ছে। অভিযোগ, ঘরের বিনিময়ে পুরসভা বাসিন্দাদের কাছ থেকে ৪৫ হাজার টাকা করে নিচ্ছে। ঘর দেওয়ার বিনিময়ে পুরসভা ২৫ হাজার টাকা এবং পুরসভার উন্নয়ন তহবিলে ২০ হাজার টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। এভাবে উন্নয়ন তহবিলে টাকা নেওয়ার পুরসভার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া ঘর প্রাপকদের তালিকা তৈরির ক্ষেত্রেও দিনহাটা পুরসভার একাধিক কাউন্সিলার উপভোক্তাদের থেকে কাটমানি নিচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। দিনহাটা পুরসভার চেয়ারম্যান উদয়ন গুহ বাসিন্দাদের ঘর দেওয়ার বিনিময়ে ২০ হাজার টাকা করে নিচ্ছেন বলে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ দিনকয়েক আগে দিনহাটা পাঁচমাথার মোড়ের সভা থেকে অভিযোগ করেন। সিপিএম-ও একই অভিযোগ তোলে।

- Advertisement -

সিপিএমের ছাত্র সংগঠন এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য শুভ্রালোক দাস বলেন, পুরসভা ঘর দেওয়ার ক্ষেত্রে বাসিন্দাদের থেকে ২৫ হাজার টাকার পাশাপাশি ২০ হাজার টাকা অতিরিক্ত নিচ্ছে। এছাড়া একাধিক কাউন্সিলার ঘরের তালিকা তৈরিতে কাটমানি নিয়েছেন। সেই সব টাকা ফেরতের দাবিতে আগামী ১৭ জুলাই পুরসভায় বিক্ষোভ দেখানো হবে। পাশাপাশি, পুরসভার চেয়ারম্যানকে স্মারকলিপি দেওয়া হবে। বিজেপির কোচবিহার জেলা সম্পাদক সুদেব কর্মকার বলেন, পুর এলাকায় ঘর দেওযার ক্ষেত্রে উপভোক্তাদের থেকে অতিরিক্ত ২০ হাজার টাকা করে কাটমানি নেওয়া হচ্ছে। সেই টাকা ফেরতের দাবিতে ইতিমধ্যে মহকুমাশাসকের দপ্তরে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। এতে কাজ না হলে আগামীতে  বৃহত্তর আন্দোলনে নামা হবে বলে তিনি হুমকি দেন। দিনহাটার পুরপ্রধান উদয়ন গুহ বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দিনহাটা পাঁচমাথার মোড়ে সভা করে বিরোধীদের যাবতীয় অভিযোগের উত্তর দেওয়া হবে।