কোচবিহারে পথকুকুরকে কোপানোর অভিযোগ

154

কোচবিহার: মুরগির পেছনে ছোটার অপরাধে একটি পথকুকুরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোর অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। শনিবার রাতে এমন ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কোচবিহার শহরের তল্লিতলা লাগোয়া এলাকায়। জল গড়িয়েছে থানা এবং পুলিশ পর্যন্তও। সোশ্যাল মিডিয়াতেও নিন্দার ঝড় উঠেছে।  তদন্ত শুরু করেছে কোচবিহার কোতয়ালি থানার পুলিশ।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, মুরগির পেছনে ছোটার অপরাধে কুকুরটিকে কোপান ওই ব্যক্তি। পরে স্থানীয় বাসিন্দা এবং পশুপ্রেমী সংস্থা কোচবিহার অ্যানিমেলস অ্যান্ড রেপটাইলস প্রোটেক্টিং সোসাইটির  সদস্যদের তৎপরতায় ওই সারমেয়টির চিকিৎসা চলে। পরবর্তীতে সেটিকে উদ্ধার করে সরকারি পশু চিকিৎসালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। কোচবিহার অ্যানিমেলস অ্যান্ড রেপটাইলস প্রোটেক্টিং সোসাইটির সভাপতি অভিরাজ আইচ বলেন, ‘এধরণের ঘটনা নিন্দনীয়। আমরা সোমবার প্রতিবাদ মিছিলে সামিল হব। সংগঠনের তরফে কোচবিহার কোতোয়ালি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বর্তমানে পথকুকুরটি সুস্থ রয়েছে।‘

- Advertisement -

ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন পশুপ্রেমীরা। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। পশুপ্রেমী দীপঙ্কর মন্ডল বলেন, ‘নিন্দনীয় এবং নির্মম ঘটনা। এক শ্রেণীর মানুষ অবলা প্রাণীদের উপর অত্যাচার চালাচ্ছেন। তাঁদের মানসিকতাকে ধিক্কার।’