পণের দাবিতে বধূ খুনের অভিযোগ শশুরবাড়ির বিরুদ্ধে

291

রায়গঞ্জ: দাবি মতো পণের টাকা না পাওয়ায় বধূকে বিষ খাইয়ে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। মৃতার নাম কল্পনা ঘোষ। শুক্রবার এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল রায়গঞ্জ শহর সংলগ্ন সুভাষগঞ্জের ঘোষপাড়া এলাকায়। অভিযোগের ভিত্তিতে এদিন বিকেল চারটা নাগাদ শ্বশুর-শাশুড়িকে গ্রেপ্তার করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। নিগৃহীতার স্বামী পলাতক।

মৃতের পরিবার সূত্রে খবর, ১৩ বছর আগে সুভাষগঞ্জ ঘোষপাড়ার বাসিন্দা দুধ ব্যবসায়ী সুদেব ঘোষের সঙ্গে মালদহ জেলার মঙ্গলবাড়ীর বাসিন্দা কল্পনা ঘোষের বিয়ে হয়। বিয়ের মাস তিনেক পর থেকে পণের জন্য কল্পনা দেবীর উপর চাপ সৃষ্টি করতেন স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। পণের টাকা না পেলে প্রায়ই কল্পনা দেবীকে মারধর করা হত বলে অভিযোগ। তাই বহু সময় বাধ্যহয়ে বাপের বাড়ি থেকে টাকা এনে দিয়েছেন কল্পনা ঘোষ।
আরও অভিযোগ, সম্প্রতি মৃত গৃহবধূর দাদা সুশীল ঘোষ বসতবাড়ির এক কাঠা জায়গা বিক্রি করেছিলেন। সেই টাকা থেকে এক লক্ষ টাকা আনার জন্য কল্পনা দেবীর ওপর চাপ দেন সুদেব ঘোষ ও তাঁর বাবা-মা। কিন্তু টাকা না পেয়ে কল্পনা দেবীর ওপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার শুরু করেন ধৃতরা।

- Advertisement -

সূত্রের দাবি, বৃহস্পতিবার সকালে কল্পনা দেবীকে বিষ মেশানো জল খাইয়ে দেয় তাঁর শাশুড়ি, ননদ, স্বামী। এরপর তাঁর গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পরে হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। খবর পেয়ে, মালদহের মঙ্গলবাড়ী থেকে তড়িঘড়ি রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে আসেন কল্পনা দেবীর দুই দাদা। রাতে হাসপাতালে এসে দেখেন শশুরবাড়ির লোকজন কেউ নেই। শারীরিক অবস্থার ক্রমশ অবনতি হওয়ায় উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজে স্থানান্তরের নির্দেশ দেন চিকিৎসকরা। শুক্রবার সকালে মালদহ মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। সেই মতো মৃতের দুই দাদা অ্যাম্বুলেন্সের নিয়ে এলেপ শেষরক্ষা হল না। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে মৃত্যু হয় কল্পনা দেবীর।

মৃতের দাদা সুশীল ঘোষের অভিযোগ,তাঁর বোনকে বিষ খাইয়ে গায়ে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে খুন করেছে জামাই ও শশুরবাড়ির লোকজন। অপরাধীদের শাস্তির দাবি করেন তিনি। এদিন দুপুরে পাঁচজনের বিরুদ্ধে রায়গঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করে মৃতের দাদা সুশীল ঘোষ। অভিযোগের ভিত্তিতে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

মৃতের ননদ সুচিত্রা ঘোষ ও নন্দাই সুব্রত ঘোষের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। রায়গঞ্জ থানার পুলিশ আধিকারিক বলেন, খুনের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। দুই জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।