পণের দাবিতে গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে

360

রামপুরহাট: গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে। রামপুরহাট পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মহাজনপট্টি এলাকার মাড়্গ্রাম রোডের ঘটনা। মঙ্গলবার দুপুরে রামপুরহাট মহাজনপট্টির বাড়িতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়। মৃত গৃহবধূর নাম নিশা গুপ্তা। বাপের বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর থানার সাহাপাড়ায়।

পরিবার সূত্রে খবর, ২০১৩ সালের ৬ ডিসেম্বর রামপুরহাটে বিশ্বজিৎ গুপ্ত নামে যুবকের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। তাঁদের একটি পাঁচ বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে। বুধবার গৃহবধূর মা ভগবতী প্রসাদ রামপুরহাট থানায় মেয়ের স্বামী, শ্বশুর, খুড়তুতো শ্বশুর এবং খুড়তুতো শাশুড়ির বিরুদ্ধে খুনের লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ স্বামী বিশ্বজিৎ গুপ্তকে গ্রেপ্তার করেছে।

- Advertisement -

ভগবতীদেবীর অভিযোগ, বিয়ের সময় দুই লক্ষ টাকা এবং ১০ ভরি সোনার গয়না যৌতুক দিয়ে বিয়ে দেওয়া হয়েছিল। বছর পাঁচেক আগে কন্যা সন্তানের জন্ম দেওয়ার পর ফের টাকার জন্য চাপ দিতে থাকে। দিন দুয়েক আগে ফের তিনলক্ষ টাকা দাবি করে ভাই হরিরাম প্রসাদকে মেয়ে ফোন করেছিল। সেই টাকা দিতে না পারায় মেয়েকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। পুলিশ স্বামী বিশ্বজিৎ গুপ্তাকে গ্রেফতার করেছে। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।