শ্বশুর-শাশুড়িকে মারধর করার অভিযোগ ছেলে-বৌমার বিরুদ্ধে

442

রায়গঞ্জ: বৃদ্ধা মা-বাবাকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়াল রায়গঞ্জ শহরে। শনিবার রাতে রায়গঞ্জ শহরের পশ্চিম বীরনগর এলাকার ঘটনা। যদিও পরে পুলিশ গিয়ে বৃদ্ধা মা-বাবাকে বাড়িতে ঢুকিয়ে দেয়। অভিযুক্ত ছেলে-বৌমার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন মা সানেহা খাতুন ও বাবা সাবির আলি। তাদের অভিযোগ, বড় ছেলে সাইনুল আলম ও বৌমা মারুফা সুলতানা পারভিন ভুল বুঝিয়ে বাড়ি ও দোকান দখল নেওয়ার পর বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিতে চাইছে। আমাদের প্রায়ই মারধর করে। এ কারণে অনেক জায়গায় অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হচ্ছে না। পুলিশকেও জানিয়েছি।

বৃদ্ধা সালেহা খাতুন বলেন, গত শনিবার রাত ১০ টা নাগাদ বড় ছেলে ও বৌমা আমাদের মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। তারা আমাদের প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করে। পাড়া প্রতিবেশিরা এসে আমাদের বাঁচায়। রায়গঞ্জ পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান অরিন্দম সরকার বলেন, আইন অনুযায়ী ছেলে বাড়িটির মালিকানা হলেও কখনই বৃদ্ধ মা-বাবাকে বাড়ি থেকে বের করে দিতে পারে না। আমরা এই ধরনের কাজকে সমর্থন করি না। ছেলেকে আমরা ডেকে পাঠিয়েছি। অন্যায় করলে দল কারও পাশে থাকবে না। রায়গঞ্জ মহিলা থানার ওসি তপতি দেব চৌধুরী বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পরেই ঘটনাস্থলে আমাদের ফোর্স যায়। আগেও দু’বার গিয়ে বুঝিয়ে এসেছে। অভিযোগ অনুসারে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নেব। এদিন অভিযুক্ত ছেলে সাইনুল আলম ও বৌমা মারুফা সুলতানা পারভিন সাংবাদিকদের দেখেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এবং ছবি তুলতে বাধা দেন। তারা এ ব্যাপারে কিছু বলবে না জানিয়ে দেয়।

- Advertisement -