দুই নাইট গার্ডকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ, উত্তেজনা চোপড়ায়

411

চোপড়া: রাস্তার কাজ নিয়ে দুই নাইট গার্ডকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল। মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়াল চোপড়া থানার ভৈষপিটা এলাকায়। ঘটনায় দু’জনকে আটক করে পুলিশ। এদিকে তাঁদের ছেড়ে দেওয়ার দাবিতে বুধবার কংগ্রেস ও সিপিএমের তরফে এলাকায় বিক্ষোভ দেখানো হয়।

গতকাল রাতে ওই এলাকায় রাস্তা সম্প্রসারণের কাজ নিয়ে দুই নাইট গার্ডকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের দাবি, রাস্তার কাজ নিয়ে এলাকায় ঝামেলা চলছে। রাতে দুই নাইট গার্ডকে মারধর করে দুষ্কৃতীরা। তাঁরা বর্তমানে শিলিগুড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য তথা তৃণমূল নেতা জাহিদুল রহমান বলেন, ‘গতকাল রাতে দুষ্কৃতীরা নাইট গার্ডদের বেধরক মারধর করেছে। এখনও দু’জন শিলিগুড়ির একটি নার্সিংহোমে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’ মারধরের পরই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। রাতেই পুলিশ ২ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। তাঁদের ছেড়ে দেওয়ার দাবিতে এদিন কংগ্রেস ও সিপিএমের তরফে এলাকায় বিক্ষোভ দেখানো হয়। রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হয়। শেষপর্যন্ত আটক ২ জনকে পুলিশ ছেড়ে দিলে আন্দোলন তুলে নেন তাঁরা। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে রাতে নির্দোষ ২ জনকে পুলিশ এলাকা থেকে তুলে নিয়ে গিয়েছে। তাঁদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এদিন বিক্ষোভ আন্দোলনে শামিল হয়েছেন তাঁরা। স্থানীয় কংগ্রেস নেতা সাকির আলম জানান, ২ জনকে রাতে পুলিশ ধরেছিল। এদিন আন্দোলনের পর তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে চোপড়া থানার আইসি বিনোদ গজমের জানান, রাতে চা বাগানের দুই নাইট গার্ডকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এদিন সকালে এলাকায় বিক্ষোভও দেখানো হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

- Advertisement -