তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিজেপির সভামঞ্চ পোড়ানোর অভিযোগ

156

বর্ধমান: বিজেপি যুব মোর্চার সভামঞ্চ পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে ঘিরে মঙ্গলবার সকালে পূর্ব বর্ধমানের মেমারি থানার দেবীপুরে উত্তেজনা ছড়ায়। এদিন সভামঞ্চে মেমারির বিজেপি নেতৃত্বের জনসভা করার কথা ছিল। সেই মঞ্চ পুড়িয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।এবিষয়ে মেমারি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বিজেপি নেতারা। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। যদিও মেমারির তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব বিজেপির অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছে।

বিজেপি নেতা ভীষ্মদেব ভট্টাচার্য বলেন, ‘দেবীপুরে ডিভিসি বাঁধের ধারে সোমবার একটি সভামঞ্চ তৈরি করা হয়েছিল। সেই মঞ্চে মঙ্গলবার বিজেপির সভা হওয়ার কথা ছিল।কিন্তু এদিন সকালে এলাকার বিজেপি যুব মোর্চার কর্মীরা দেখেন, সভামঞ্চের একাংশ পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি সেখানে তৃণমূলের দলীয় পতাকা টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছে।’ ভীষ্মদেববাবু আরও বলেন, ‘তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা এই কাজ করেছেন। মেমারি থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’ যদিও মেমারির তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা বিজেপির অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন।

- Advertisement -

তৃণমূল যুব কংগ্রেসের মেমারি-১ ব্লক সভাপতি জিতেন্দ্র সিং বলেন, ‘তৃণমূল গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। কোনও রাজনৈতিক দলের মঞ্চ বা পতাকা পোড়ানোয় তৃণমূল বিশ্বাস করে না। বিজেপি এইসব ঘৃণ্য সংস্কৃতি বাংলায় আমদানি করছে।’জীতেন্দ্রবাবু আরও বলেন, ‘মেমারিতে বিজেপির আদি-নব্য দ্বন্দ্ব চরমে উঠেছে। ওঁদের এক গোষ্ঠী অন্য গোষ্ঠীর সভামঞ্চে আগুন লাগিয়েছে। পরে সেখানে তৃণমূলের পতাকা টাঙিয়েছে। বদনাম করতেই বিজেপির নেতারা ঘটনার সঙ্গে তৃণমূলের নাম জড়াচ্ছেন’