স্বনির্ভর গোষ্ঠীর টাকা আত্মসাতের অভিযোগ, চাঞ্চল্য়

72

রাঙ্গালিবাজনা: গোষ্ঠীপিছু ৫০ হাজার টাকা করে এককালীন দিয়েছে রাজ্য় সরকার, এমনটাই দাবি মাদারিহাটের রাঙ্গালিবাজনা গ্রামপঞ্চায়েতের চাঁপাগুড়ির স্বনির্ভর গোষ্ঠীর৷ অভিযোগ, কাউকে কিছু না জানানোর পাশাপাশি ভুল বুঝিয়ে ব্যাংক থেকে টাকা তুলে আত্মসাত করা হয়েছে সংঘ এবং উপসংঘের তরফে৷ এই পরিস্থিতিতে সংঘ এবং উপসংঘের কর্ত্রীদের উপস্থিতিতে রবিবার স্থানীয় মাদ্রাসা শিক্ষাকেন্দ্রে বৈঠক তলব করা হয় স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলির তরফে। যদিও সংঘ এবং উপসংঘের তরফে কেউই এদিন উপস্থিত ছিলেন না। এরপরই উপসংঘের ২ কর্ত্রীর বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখান স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা।

অভিযোগ অস্বীকার করে সংঘ, উপসংঘ এমনকি ব্যাংকের তরফেও জানানো হয়েছে, বিষয়টি নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হচ্ছে। আদৌ রাজ্য় সরকার ওই টাকাগুলি এককালীন দেয়নি। সেগুলিকে ১ শতাংশ হারে ঋণ হিসেবে দেওয়া হয়েছে। ওই ঋণ স্বনির্ভর গোষ্ঠী ও উপসংঘের মাধ্যমে কিস্তিতে পরিশোধও করা হচ্ছে। একই তথ্য জানান শিশুবাড়ির রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকটির বিজনেস করেসপন্ডেন্ট প্রদীপ বসাক। তিনি জানান, গত বছর ৩০টি স্বনির্ভর গোষ্ঠী আবেদন করলেও টাকা বরাদ্দ হয় মাত্র সাতটি গোষ্ঠীর। সংঘের মাধ্যমে ঋণ হিসেবেই ওই টাকা দেওয়া হয়। কিন্তু স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলির তরফে পারুল বেগম, হালিমা বেগমরা জানান, ওই টাকা এককালীন হিসেবে তাঁদের প্রাপ্য। উপসংঘ তাদের ভুল বুঝিয়ে টাকা তুলে নিয়েছে।

- Advertisement -

এদিনের বৈঠকে উপস্থিত রাঙ্গালিবাজনা গ্রাম পঞ্চায়েতের চাঁপাগুড়ির সদস্য বাবলু প্রধান জানান, প্রয়োজন অনুসারে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানানো হয়েছে৷