যোজনার টাকা পেতে হয়রানির অভিযোগ

92

পারডুবি: শ্রম দপ্তরের সামাজিক সুরক্ষা যোজনার টাকা পেতে হয়রানির অভিযোগ। এই যোজনায় টাকা পেতে হয়রান হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন মাথাভাঙ্গা ২ ব্লকের পারডুবি গ্রাম পঞ্চায়েতের পারডুবি বাজার পার্শস্থ কাঠিমিল পাড়ার বাসিন্দা প্রহ্লাদ বিশ্বশর্মা। তাঁর অভিযোগ, স্ত্রী গীতা বিশ্বশর্মার নামে শ্রম দপ্তরের সামাজিক সুরক্ষা যোজনার অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছিল। যথারীতি পাস বইয়ে টাকা জমা রাখতেন তিনি। এরপর ২০১৯ সালে তাঁর স্ত্রী ব্রেন স্ট্রোক করে মারা যান। ২০২০ সালের অগাস্ট মাসে বিডিও অফিসে সামাজিক সুরক্ষা যোজনায় জমা করা টাকা ও বিমার টাকা পাওয়ার জন্য আবেদনপত্র জমা করা হয় সংশ্লিষ্ট অ্যাকাউন্টের নমিনির নামে। প্রহ্লাদ বিশ্বশর্মার অভিযোগ প্রায় এক বছরের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত কোনও টাকা হাতে পাননি তিনি। এবিষয়ে একাধিকবার বিডিও ও মাথাভাঙ্গা মহকুমা শ্রম দপ্তরের অফিসে যোগাযোগ করা হলেও কোনও লাভ হয়নি।

প্রহ্লাদবাবু জানিয়েছেন, এনবিএসটিসির চেয়ারম্যান পার্থপ্রতীম রায়কে এবিষয়ে জানানো হলে তিনি একটি চিঠি লিখে দেন। সেটি নিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে গিয়ে দেখালে বিষয়টি দেখা হচ্ছে বলে আশ্বাসও দেওয়া হয়। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও টাকা হাতে না পাওয়ায় চরম সমস্যায় পড়েছেন বলে দাবি করেন তিনি। ওই টাকা দ্রুত পাওয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন প্রহ্লাদবাবু।

- Advertisement -

মাথাভাঙ্গা মহকুমা শ্রম দপ্তরের আধিকারিক টি কে সর্দার জনিয়েছেন, বিষয়টি তাঁর জানা নেই। খোঁজ নিয়ে খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।