বনকর্মীদের বিরুদ্ধে কাঠ পাচারকারীদের মদত দেওয়ার অভিযোগ

69

নকশালবাড়ি: সংরক্ষিত বনাঞ্চলের গাছ কেটে পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল এক পাচারকারী। অভিযোগ, কার্শিয়াং ডিভিশনের অন্তর্গত টুকরিয়া ঝাড় বনাঞ্চলের কিছু কর্মী পাচারকারীদের মদত দিচ্ছেন। বুধবার রাতে টুকরিয়া ঝাড় বনাঞ্চলের শিমুলতলা এবং কোয়ার্টারমোড় এলাকা থেকে বনকর্মীদের উপস্থিতিতেই কিছু পাচারকারী সেগুন এবং শাল গাছ কেটে সাইকেলে করে নিয়ে যাচ্ছিল। তখন টুকরিয়া ঝাড় বনাঞ্চলের জয়েন্ট ফরেস্ট প্রোটেকশন কমিটির এগজিকিউটিভ মেম্বার সমীর ঘোষ তাদের হাতেনাতে ধরে ফেলেন। বাকিরা সাইকেল ছেড়ে পালিয়ে গেলেও শুক্রা রাই নামে পাচারকারী ধরা পড়ে যায়। তাকে রেঞ্জারের হাতে তুলে দেন জয়েন্ট ফরেস্ট প্রোটেকশন কমিটির সদস্যরা।

অভিযোগ, টুকরিয়া ঝাড় বনাঞ্চল থেকে প্রতিরাতেই শাল এবং সেগুন গাছ কেটে পাচার করছে একটি সিন্ডিকেট। জঙ্গল থেকে গাছ কেটে সেগুলি নেপাল ও বিহারের দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। গত চারদিনে ১২টি সেগুন গাছ জঙ্গল থেকে কেটে পাচার করা হয়েছে। টুকরিয়া ঝাড় বনাঞ্চলের কিছু কর্মী এই সিন্ডিকেট থেকে মাসিক হারে টাকা তুলছেন বলে অভিযোগ।

- Advertisement -

বুধবার রাতে সমীর ঘোষের নেতৃত্বে জয়েন্ট ফরেস্ট প্রোটেকশন কমিটির সদস্যরা অভিযান চালিয়ে সেগুন গাছের দশটি লগ, একটি ভুটভুটি, চারটি সাইকেল উদ্ধার করেছেন। এই বিষয়ে টুকরিয়া ঝাড়ের রেঞ্জার টিটি ভুটিয়া জানান, শুক্রা রাইকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বাকিদেরও গ্রেপ্তার করা হবে। কাঠ পাচারে বন দপ্তরের কোনও কর্মী জড়িত রয়েছেন কিনা, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।