কুনোর হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ

81

রায়গঞ্জ: উত্তর দিনাজপুরের কুনোর হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ উঠল। স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার কালিয়াগঞ্জ থানার বেলালপুর গ্রামের বাসিন্দা জয়ন্তী দেবশর্মা নামে এক কিশোরী আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এরপর পরিবারের লোকজন তাকে কুনোর হাসপাতালে নিয়ে যান। কিশোরীর মুখে গ্যাজলা দেখে চিকিৎসকরা ধরে নেন তাকে সাপে ছোবল দিয়েছে।

অভিযোগ, সেখানে পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কোনও কথা না বলে কিশোরীকে অ্যান্টিভেনম ইনজেকশন দেওয়া হয়। এরপর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে কুনোর থেকে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করা হয়। ওই কিশোরীকে আইসিইউয়ে ভর্তি করা হয়েছে। সে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। কিশোরীর বাবা হরি দেবশর্মা বলেন, ‘আমার মেয়ের মৃত্যু হলে কুনোর হাসপাতালের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা দায়ী থাকবেন।‘ রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ প্রিয়ঙ্কর রায় বলেন, ‘ওই কিশোরীর পরিবারের সদস্যরা আমাদের কাছে অভিযোগ জানাতে এসেছিলেন। আমরা তাঁদের বলেছি থানায় অথবা স্বাস্থ্য দপ্তরে অভিযোগ জানান।‘ জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক কার্তিকচন্দ্র মণ্ডল বলেন, ‘অভিযোগ পেলে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।‘

- Advertisement -