খাবার অর্ডার করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ কোচবিহারে

321
ছবিটি সংগৃহীত

কোচবিহার: অনলাইনে খাবার অর্ডার করে টাকা দেওয়ার পরিবর্তে উলটে মোটা টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠল। করোনা পরিস্থিতিতে সর্বত্রই খাবার হোম ডেলিভারির সংখ্যা কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছে। বহু ক্ষেত্রেই দাম মেটানো হচ্ছে অনলাইনের মাধ্যমে। এবার সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সক্রিয় হয়ে উঠেছে একটি অসাধু চক্র। বিষয়টি নিয়ে পুলিশের সাইবার ক্রাইমে অভিযোগও জমা পড়েছে। পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, অনলাইন লেনদেনের ক্ষেত্রে সবাইকে সতর্ক থাকা প্রয়োজন। অভিযোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

কোচবিহারের এমজেএন রোডে একটি রেস্তোরাঁ রয়েছে আনন্দ পালের। করোনা পরিস্থিতিতে হোম ডেলিভারির সংখ্যাই বেশি। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর কাছে আর্মি ব্যারাকের পরিচয় দিয়ে একজন ফোন মারফত ৪,২৭৫ টাকার খাবার অর্ডার করেন। খাবার রেডি হলে ওই ব্যক্তি নিজেই আবার আনন্দবাবুকে ফোন করে অনলাইনে বিল পেমেন্ট করতে চেয়ে ব্যাংক ডিটেইলস নেন। ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সমস্যা হওয়ার কথা বলে এটিএম কার্ডের তথ্যও জেনে নেন। এরপরই ধাপে ধাপে ১৫ হাজার টাকা তাঁর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে কেটে নেওয়া হয়।

- Advertisement -

রবিবার সন্ধ্যায় আনন্দবাবু জানান, ফোন করে প্রতারক বলেছিল তাড়াতাড়ি খাবার ডেলিভারি করতে হবে। এরপর তিনি আবার ফোন করে জানান যে, খাবার নেওয়ার জন্য তিনিই নাকি গাড়ি পাঠাচ্ছেন। পেমেন্ট অনলাইনেই করবেন। তিনি আর্মির পরিচয় দেওয়ায় সন্দেহ হয়নি। তিনি বলেছিলেন, ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হচ্ছে না। তাই এটিএমের তথ্য পাঠাতে বলেছিলেন। কিন্তু এভাবে প্রতারিত হবেন তা বুঝতে পারেননি। যে নম্বরটি দিয়ে প্রতারণা করা হয়েছে সেটি রবিবার সন্ধ্যেতেও খোলা ছিল বলে জানান তিনি।