গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে

276

গাজোল: গৃহবধূকে বিষ খাইয়ে খুনের অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। রবিবার মালদা জেলার গাজোল থানা এলাকার ঘঠনা। মৃত গৃহবধূর নাম রিঙ্কি সাহা(৩৪)। তার বাপের বাড়ি গাজোলের তুলসীডাঙা এলাকায়। মৃতের বাপের বাড়ির তরফে লিখিত অভিযোগ পেয়ে গাজোল থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। পুলিশ সূত্রে খবর, রিঙ্কির বাপের বাড়ির অভিযোগ স্বামীর বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কের বিষয়ে জানতে পেরেছিল রিঙ্কি। একই সঙ্গে রিঙ্কির নামে থাকা সম্পত্তি স্বামীর নামে লিখে না দেওয়ায় বিষ খাইয়ে খুন করা হয়েছে।

রিংকির দাদা শংকর সাহা জানান, প্রায় ১৪ বছর আগে রানীগঞ্জের আরাজি জলসা গ্রামের বাসিন্দা উত্তম সাহার সঙ্গে তার বোনের বিয়ে হয়। ওদের চারটি ছেলে-মেয়ে আছে। শংকরের অভিযোগ, রিংকির নামে গাজোলে বেশ কিছু জমি জায়গা আছে। দীর্ঘদিন ধরেই ওই জায়গা বিক্রি করার জন্য রিংকির উপর চাপ সৃষ্টি করত শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। কিন্তু হাজার চাপেও বোন রাজি হয়নি। এদিকে এক মহিলার সঙ্গে উত্তম সাহার অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মাস চারেক আগে এই বিষয়টিও জেনে ফেলে রিংকি। ঘটনার প্রতিবাদ করায় তার উপর অত্যাচারের মাত্রা আরও বেড়ে যায়। এরপর রবিবার গভীর রাতে রিংকি বিষ পান করেছে বলে খবর আসে। তাঁরাই রিঙ্কিকে উদ্ধার করে স্থানীয় এক হাতুড়ের কাছে নিয়ে যান। সেখান থেকে গাজোল গ্রামীণ হাসপাতালে আনার পথে মারা যায় রিংকি। হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। শংকরের অভিযোগ, বোন নিজে বিষ পান করেন নি। বিষপানের বিষয়ে শ্বশুর বাড়ির লোকের হাত থাকতে পারে। এ বিষয়ে শ্বশুরবাড়ির বক্তব্য জানার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু স্বামী বা শ্বশুরবাড়ির কাউকেই পাওয়া যায়নি।

- Advertisement -

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।