স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী ও মেয়েকে খুনের অভিযোগ

512

মুর্শিদাবাদ: এক বছরের কন্যাসন্তান ও তাঁর মাকে খুন করে পালাল বাবা! এমনই অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়া থানার ছাতিমতলা গ্রামে। বুধবার রাতের ঘটনা। পুলিশ এসে মৃতদেহদুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ঘটনায় অভিযুক্ত সন্দেহে হরিহরপাড়া থানার পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য মৃতের শ্বশুর ইনতাজুল শেখকে আটক করেছে। যদিও ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মিলন শেখ পলাতক। অভিযুক্তের সঙ্গে পাশের গ্রামের এক মহিলার অবৈধ সর্ম্পকের জেরে এই খুন বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

পুলিশ এবং পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতদের নাম পিংকি বিবি (২৬) এবং রানী খাতুন (০১)। বছর এগোরা আগে পিংকির সঙ্গে ছাতিমতলার বাসিন্দা পেশায় দিনমজুর মিলন শেখের সঙ্গে বিয়ে হয় বলে জানিয়েছেন মৃতের বাবা মোজাম্মেল হক। তাঁর অভিযোগ, মিলন মাঝেমধ্যেই মেয়ের উপরে শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার চালাত বলে জানতে পেরেছি। তাঁদের ১০ বছরের ছেলে এবং এক বছরের মেয়ে নিয়ে সংসার ছিল। কিছুদিন আগে শুনতে পেয়েছিলাম, মিলনের সঙ্গে পাশের গ্রামের এক মহিলার সঙ্গে অবৈধ সর্ম্পক আছে। বিষয়টি আমরা বেশ কয়েকবার তাকে বুঝিয়েছিলাম। তারপরে বেশকিছু দিন সব ঠিকঠাক ছিল। হঠাৎ মিলন রাতে আমাদের ফোন করে।

- Advertisement -

মোজাম্মেলসাহেবের দাবি, সে ফোনে জানায় পিংকি এবং তাঁর মেয়ে রানী দুজনেই বিদ্যুতের আঘাতে আহত হয়েছে। আমরা ঘটনার কথা জানতে পেরে সকালে মেয়ের বাড়িতে আসি। আসার পরে দেখতে পাই, মেয়ে এবং নাতনির মৃতদেহ তাঁদের ঘরে বিছানার উপরে পরে আছে। বাড়িতে কোনও লোক নেই। তাঁর শরীরে বিভিন্ন জায়গায় ক্ষতের চিহ্ন আমরা দেখতে পেয়েছি। তাঁদের বড় ছেলেও বেশ কয়েকদিন থেকে আমাদের বাড়িতে ছিল। মোজাম্মেলসাহেব বলেন, আমি নিশ্চিত মিলন আমার মেয়ে ও নাতনিকে খুন করে পালিয়েছে। আমরা হরিহরপাড়া থানাতে খুনের অভিযোগ দায়ের করেছি। তার কঠোর শাস্তির দাবি জানাচ্ছি আমরা।

মুর্শিদাবাদ পুলিশ জেলার পুলিশ সুুপার কে.সবরি রাজকুমার বলেন, হরিহরপাড়ার ছাতিমপুর গ্রামে এক পরিবারের মেয়ে ও তার এক বছরের মেয়ে খুন হয়েছে। তার অভিযোগ আমরা পেয়েছি। মৃতদেহ উদ্ধার করে মযনাতদন্তের জন্য মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।মিলন শেখ সহ তার পরিবারের বেশ কয়েকজনের নামে অভিযোগ আমরা পেয়েছি। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মিলনের বাবা ইনতাজুল শেখকে আটক করা হয়েছে। যদিও ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মিলন শেখ পলাতক। তার খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।