প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে আলু পাচারের অভিযোগ

231

তুফানগঞ্জ: শিশু শিক্ষা কেন্দ্র থেকে আলু পাচারের অভিযোগ উঠল প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে। পাশাপাশি কম চাল ও পচা আলু দেওয়ারও অভিযোগ ওঠে। এই বিষয়গুলিকে কেন্দ্র করে শুক্রবার বিকালে স্থানীয় শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের প্রধান শিক্ষিকাকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাল স্থানীয়রা। ঘটনাটি ঘটেছে নাককাটি গাছ গ্রাম পঞ্চায়েতের তালতলা এলাকার পশ্চিম নাককাটি শিশুশিক্ষা কেন্দ্রে। বিক্ষোভ চলে প্রায় ২ ঘন্টা। সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন তুফানগঞ্জ ১ ব্লকের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার ওই শিশু শিক্ষা কেন্দ্র থেকে চাল, ডাল এবং আলু বিতরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার চাল, ডাল এবং আলু বিতরণ করা হলেও তা নিয়ে যায়নি অনেকেই। এদিন বাকি পড়ুয়ারা আসেন শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে। তাদের চাল, ডাল এবং আলু দেওয়া হয়। এরপরই সমস্যা শুরু হয়। এদিন যে পড়ুয়ারা চাল নিতে শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে আসে, তাদের পচা আলু দেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ। এই নিয়ে শুরু হয় বিক্ষোভ। অনেক বুঝিয়ে বিক্ষোভ প্রশমিত করা হয়। সেই সময়ই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ব্যাগে করে ভালো আলু নিয়ে বাড়ির পথে রওনা দেন।

- Advertisement -

তিনি রওনা দিতেই বিষয়টি জানাজানি হয়। স্থানীয়রা আলু পাচারের অভিযোগ তুলে প্রধান শিক্ষিকাকে ঘিরে ফের বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। বেগতিক দেখে প্রধান শিক্ষিকা বিষয়টি তুফানগঞ্জ ১ ব্লকের যুগ্ম সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিককে মোবাইলে বিস্তারিত জানান। তিনি ঘটনার বিস্তারিত শুনে পচা আলু পরিবর্তন করে দেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। অন্যান্য সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিলে স্থানীয়রা বিক্ষোভ তুলে নেয়।

স্থানীয় বাসিন্দা আনন্দ পোদ্দার, আহম্মদ হোসেন সহ আরও অনেকে জানান, এই শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। এদিন শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের ভালো আলু প্রধান শিক্ষিকা বাড়িতে নিয়ে যাচ্ছিলেন। সেই সময় তিনি হাতেনাতে ধরা পড়ে যায়। চালও কম পরিমানে দেওয়া হচ্ছিল। বিষয়গুলি জানাজানি হতেই বিক্ষোভ শুরু হয়।

শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের প্রধান শিক্ষিকা মঞ্জুশ্রী শীল শর্মা বলেন, স্থানীয়দের অভিযোগ ভিত্তিহীন। আমি আলু পাচারের সাথে কোন ভাবেই যুক্ত নই। আমার বাড়ির পাশের তিন জন পড়ুয়া এই শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে পড়ে। তাদের জন্যই এদিন আলু নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। স্থানীয়রা কিছু না বুঝেই আমার প্রতি মিথ্যা অভিযোগ তুলছে। খারাপ আলুর বিষয়ে আমি বিস্তারিত তথ্য পাঠিয়েছি বিডিও অফিসে। তারা যা নির্দেশ দেবেন তা মেনে নেওয়া হবে।

তুফানগঞ্জ ১ ব্লকের যুগ্ম সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক অরুন কুমার বর্মা জানান, মৌখিক অভিযোগ পেয়েছি। খারাপ আলু পরিবর্তন করে দেওয়া হবে। অন্যান্য অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।