ভিন রাজ্যে বালি পাচারের অভিযোগ, কাঠগড়ায় প্রশাসন

60

খড়িবাড়ি: ভোট মিটতেই কোভিড অতিমারিকে কাজে লাগিয়ে খড়িবাড়িতে ফের বলি মাফিয়ারা সক্রিয় হয়ে উঠেছে বলে অভিযোগ। বিশেষ সূত্রে খবর, লিজ না থাকা সত্ত্বেও প্রায় দিনই নদীগর্ভ থেকে লুট হচ্ছে বালি-পাথর। এর ফলে একদিকে যেমন লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব ক্ষতি হচ্ছে, তেমনই নষ্ট হচ্ছে নদীর গতিপথ সহ জীব বৈচিত্র। ক্রমেই ভাঙছে নদীর চড়। অথচ প্রশাসন নির্বিকার বলে অভিযোগ উঠেছে।

অবৈধভাবে বালি পাথর তোলার বিরুদ্ধে উত্তরবঙ্গ সংবাদে খবর প্রকাশের পর প্রায় চার মাস ধরে বলি পাচার বন্ধ ছিল। তবে ভোট পর্ব মিটতেই ফের বালি মাফিয়ারা সক্রিয় হয়ে ওঠে বলে অভিযোগ। স্থানীয় সূত্রে খবর, সন্ধ্যা নামতেই মাঝ নদীতে জেসিবি নামিয়ে বলি-পাথর চুরি করে চোরাপথে বিহার পাচার করা হয়। এবিষয়ে অবশ্য শ্রমিকরা কোনও কথা বলতে রাজি নন।

- Advertisement -

লিজহীন ঘাট থেকে অবৈধভাবে বলি-পাথর তোলার বিষয়ে খড়িবাড়ির বিডিও নিরঞ্জন বর্মন উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিয়েছেন। খড়িবাড়ি ব্লক ভূমি ও ভূমি রাজস্ব অধিকারক মানস মাইতি অবৈধভাবে বালি পাচারের বিষয়টি স্বীকার করেন। তবে রাতে বলি-পাথর পাচার বন্ধের বিষয়ে তিনি সংশয় প্রকাশ করেন।