ভুল ইনজেকশনে অবসরপ্রাপ্ত চিকিৎসকের মৃত্যুর অভিযোগ

190

রায়গঞ্জ: ভুল ইনজেকশনের জেরে মৃত্যু অবসরপ্রাপ্ত এক চিকিৎসকের। ঘটনায় কাঠগড়ায় রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। যদিও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাফ বক্তব্য, চিকিৎসায় কোন গাফিলতি হয়নি। রোরীর শারিরীক অবস্থা অবনতি হতেই তাঁকে রেফার করা হয়। যদিও রোগীর পরিজনেরা তাতে কর্ণপাত করেননি। তাঁদের গাফিলতির জেরেই রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রবিবার দুপুরে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হাসপাতাল চত্বরে।

পরিবার সূত্রে খবর, মৃত ওই চিকিৎসকের নাম শশীভূষণ প্রসাদ শ্রবাস্তব। তিনি আসামের কোল ইন্ডিয়া সংস্থার চক্ষু বিশেষজ্ঞ পদে কর্মরত ছিলেন। জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে শ্বাসকষ্টজনিত কারণে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। এরপর গতকাল রাতে ইনজেকশন দেওয়া হয়। অভিযোগ, তারপর থেকে সারা শরীর অবসন্ন হতে থাকে। এদিন দুপুরে মৃত্যু হয়।

- Advertisement -

মৃত ওই চিকিৎসকের স্ত্রী মায়াদেবীর অভিযোগ, শুক্রবার রাতে শ্বাসকষ্টজনিত কারণে হাসপাতালে ভর্তি করি। শনিবার সকাল থেকে আমাদের সঙ্গে কথা বলা থেকে শুরু করে খাওয়া-দাওয়া সব করেছিল। রাতের দিকে এক নার্স ইঞ্জেকশন দেওয়ায় আমার স্বামী ধীরে ধীরে ঝিমিয়ে যেতে শুরু করে। এদিন আমার স্বামীর মৃত্যু হয়।

মৃতের ছেলে সুরাজ শ্রীবাস্তবের অভিযোগ, বাবা সুস্থ অবস্থায় হেঁটে হেঁটে হাসপাতালে ভর্তি হয়। গতকাল কী যে ইনজেকশন দিল, তারপর থেকে বাবার আর কোনো জ্ঞান নেই। নার্স ও চিকিৎসকের গাফিলতিতেই আমার বাবার মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

মেডিসিন বিভাগের এক চিকিৎসকে বক্তব্য, ওই অবসর প্রাপ্ত চিকিৎসক হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি ব্রেন স্ট্রোক হয়েছিল।অন্যত্র মেডিকেল কলেজে রেফার করা হয়েছিল। ওঁরা নিয়ে যায়নি। চিকিৎসার কোন গাফিলতি হয়নি রোগীর পরিজনদের অবহেলায় মৃত্যু হয়েছে চিকিৎসাধীন ওই রোগীর।

রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ প্রিয়ঙ্কর রায় বলেন, ‘চিকিৎসার কোন গাফিলতি হয়নি রোগীর আত্মীয়রা যে অভিযোগ আনছে তা ঠিক নয়।’