নার্সিংহোমে শ্লীলতাহানির অভিযোগ, ধৃত ওয়ার্ড বয়

263

বর্ধমান: রোগীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে বেসরকারি নার্সিংহোমের এক ওয়ার্ড বয়কে গণধোলাই দিল পরিজনরা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে বর্ধমানের বোরহাট এলাকায়। পরবর্তীতে বর্ধমান থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। রোগীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযুক্ত ওয়ার্ড বয় বাপ্পা সরকারকে গ্রেপ্তার করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শ্বাসকষ্ট জনিত কারণে পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের এক তরুণীকে গত বুধবার বোরহাটের নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়। ওই নার্সিংহোমেরই ওয়ার্ড বয় বাপ্পা সরকার চিকিৎসাধীন তরুণীর শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ। এদিন ওই তরুণীর পরিবাররের লোকজন নার্সিংহোমে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান। তরুণীর আত্মীয় বাসুদেব ঘোষ বলেন, ‘ওয়ার্ড বয় বাপ্পা সরকার। শ্লীলতাহানি করার জন্য রোগীকে জেনারেল ওয়ার্ড থেকে কেবিনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এই কারণে অসুস্থ অবস্থায় তাকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনা হয়।’ নার্সিংহোম মালিক অনিমেষ সরকার বলেন, ’নার্সিংহোমের ফিমেল ওয়ার্ডে চারজন মহিলা স্টাফ থাকে। তারপরেও এমন ঘটনা কী করে ঘটতে পারে তা বুঝে উঠতে পারছি না।‘

- Advertisement -