সন্তান জন্ম দিতে ঝাড়ফুঁকের নিদান দিয়ে মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ

241
প্রতীকী

কিশনগঞ্জ: এক মহিলার সন্তানহীনতার সুযোগ নিয়ে ঝাড়ফুঁকের নামে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল তান্ত্রিকের বিরুদ্ধে। রবিবার রাতে কিশনগঞ্জের মহিলা থানার পুলিশ ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতের নাম মন্টু দাস। উত্তর দিনাজপুর জেলার চাকুলিয়া থানার রামপুর গ্রামের বাসিন্দা। এছাড়াও এই কাজে সাহায্য করার অভিযোগে, কিশনগঞ্জ শহরের ধরমগঞ্জ মহল্লার বাসিন্দা রূপা দেবীকেও পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

জানা গিয়েছে, সন্তান না হওয়ায় হতাশ ছিলেন ওই মহিলা। তখনই ধৃত ওই মহিলার সূত্রে তান্ত্রিকের খবর পান তিনি। ঝাড়ফুঁকের নিদান দেন ওই তান্ত্রিক। ঝাড়ফুঁক শুরু হতেই মহিলাকে কোনওভাবে অচৈতন্য করে দেওয়া হয়। অভিযোগ, এরপরই পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে মন্টু দাস তাঁকে ধর্ষণ করে। নির্যাতিতা মহিলার শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাঁকে খুঁজতে অভিযুক্ত মহিলার বাড়িতে হানা দিলে দুই অভিযুক্ত পালিয়ে যায়। শনিবার রাতে থানায় এফআইআর দায়ের হলে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতদের আদালতের নির্দেশে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেপাজতে পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -