আদিবাসী মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ

61

বর্ধমান: এক আদিবাসী মহিলাকে নির্জন জায়গায় তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় সোমবার সকাল থেকে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বর থানা এলাকায়। পুলিশ মন্তেশ্বরের বরুনা এলাকার ক্যানেল পাড় থেকে নির্যাতিতা মহিলাকে উদ্ধার করে ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায়। শারীরিক অবস্থা খারাপ থাকায় মহিলাকে সেখান থেকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়  সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার ভোরে মন্তেশ্বরের বরুনা গ্রামের ক্যানেল পাড়ে একটি ট্র্যাক্টরের ট্রলির নীচে পড়ে কাতরাচ্ছিলেন এক আদিবাসী মহিলা। এমনটা দেখতে পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁর কাছে যান।ওই মহিলা পুলিশকে জানিয়েছেন, রবিবার সন্ধ্যায় তিনি তাঁর স্বামীর সঙ্গে মন্তেশ্বরের রাইগ্রামের বাজারে গিয়েছিলেন। বাজারে কাজ মেটাতে তাঁদের দেরি হয়। তাই তাঁর স্বামী রান্না করবেন বলে বাড়ি ফিরে যান। বাজারের কাজ মিটিয়ে সন্ধ্যার পর মহিলা একাই বাড়ি ফিরছিলেন। তাঁর অভিযোগ, অন্ধকার রাস্তা দিয়ে তিনি যখন একা হেঁটে যাচ্ছিলেন তখন কয়েকজন মিলে তাঁর মুখ চাপা দিয়ে নির্জন জায়গায় তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে। জেলা পুলিশ সুপার কামনাশিষ সেন জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

- Advertisement -