স্কুলের ক্লাসঘরে ছাত্রীকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত শিক্ষক 

160

রাঁচি: স্কুলের ফাঁকা ক্লাসঘরে লাগাতার ধর্ষণ এক নাবালিকা ছাত্রীকে। ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের পালামৌ জেলার পাঙ্কি থানা এলাকার একটি গ্রামে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কিশোরীর ময়নাতদন্তের রিপোর্টে বিষ খেয়ে মৃত্যু এবং ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে। ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত পেশায় শিক্ষক। ধর্ষিতা নাবালিকা যে স্কুলে পড়ত, সেই স্কুলেরই প্যারাটিচার সে। ওই কিশোরীকে স্কুলের ফাঁকা ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের পর নিজের অপরাধের কথা স্বীকার করেছে অভিযুক্ত।

জানা গিয়েছে, ওই কিশোরী যখন বাথরুমে যাচ্ছিল, তখন তাকে পাশের ফাঁকা ঘরে ডেকে নিয়ে যায় অভিযুক্ত। এরপর অত্যাচার চালায় নাবালিকার ওপর। এমনকি ধর্ষণের পরে ঘটনার কথা কাউকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় সে। ফলে প্রথমে কিশোরী বাড়ির কাউকেই কিছু জানায়নি। ধর্ষণের পর নির্যাতিতা কিশোরীকে জোর করে ট্যাবলেট জাতীয় কিছু খাইয়ে দেয় অভিযুক্ত। এরপরেই নেতিয়ে পড়ে ওই কিশোরী। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে বুধবার রাতেই মারা যায় সে। এরপরই কিশোরীর বাবা পাঙ্কি থানায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন। তদন্তে নেমে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে। তার বিরুদ্ধে নাবালিকা ধর্ষণ, খুন সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

- Advertisement -