নর্দমার টাকায় নদী ভরাট, তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন

62

রাজগঞ্জ: সরকারি প্রকল্পের টাকায় নদী ভরাট করে দখলের অভিযোগ উঠল রাজগঞ্জের ফুলবাড়ি ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যের বিরুদ্ধে। ১০০ দিনের কাজে প্রায় ১০০০ শ্রমিক দিয়ে নদীর পাড় ভরাট করা হয়েছে বলে অভিযোগ।

সূত্রের খবর, ফুলবাড়ি ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের ৮২ নম্বর বুথের পঞ্চায়েত সদস্য নরেশ রায় ১০০ দিনের কাজে ড্রেন তৈরি করার জন্য প্রকল্প পাস করান। বিনয় কুন্ডুর বাড়ি থেকে দেবাশিস সরকারের বাড়ি পর্যন্ত ড্রেন করার কথা ছিল। প্রকল্পের ব্যয় প্রায় ৪ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। কিন্তু তিনি ওই কাজটি না করে নিজের বাড়ির পাশে জোড়াপানি নদীর পাড় ভরাট করেছেন। বাকি টাকা দিয়ে কাঁচা রাস্তা সংস্কারের কাজ করছেন। নদী ভরাট করে ওই জমি পঞ্চায়েত সদস্য নিজে ভোগ করা বা বিক্রি করার উদ্দেশ্যেই কাজটি করেছেন বলে অভিযোগ। অভিযুক্ত নরেশ রায় জানান, নদী দিয়ে ভেসে আসা নোংরা ওখানে জমা হয় বলে স্থানটি মাটি দিয়ে ভরাট করা হয়েছে। এতে পার্শ্ববর্তী বাসিন্দাদের সুবিধা হবে। এর পেছনে কোনও অসৎ উদ্দেশ্য নেই বলেও দাবি তাঁর। গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান নমিতা করাতি জানান, সরকারি প্রকল্পের টাকায় নদী ভরাট করে থাকলে ওই পঞ্চায়েত সদস্য তা ঠিক করেনি। বিষয়টি খতিয়ে দেখে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে। রাজগঞ্জের বিডিও পঙ্কজ কোনার জানিয়েছেন, অভিযোগ খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

- Advertisement -