স্বামীর অবৈধ সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় মহিলাকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ

683
প্রতীকী ছবি।

মুর্শিদাবাদ: স্বামীর অবৈধ সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় এক মহিলাকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল। অভিযোগের তির তাঁরই স্বামীর বিরুদ্ধে। শনিবার সকালে মুর্শিদাবাদের বড়ঞা থানার বদুয়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। মৃতের নাম মমতাজ বিবি (২৭)। ওই মহিলাকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় কান্দি মহুকুমা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত স্বামী পলাতক।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় সাত বছর আগে মনীগ্রামের মমতাজ বিবির সাথে পেশায় দিনমজুর সুরপাল শেখের বিয়ে হয়। অভিযোগ, সম্প্রতি সুরপালের সঙ্গে স্থানীয় এক মহিলার অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই নিয়ে সুরপাল এবং মমতাজের মধ্যে প্রায় প্রতিদিনই অশান্তি হত। আজ সকালে একই বিষয়ে অশান্তির পর সুরপাল তাঁর স্ত্রীকে একটি ঘরে ঢুকিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। অভিযুক্তের প্রতিবেশীরা আগুন দেখতে পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙে মমতাজকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে সেখানেই মৃত্যু হয় তিন সন্তানের মা মমতাজের।

- Advertisement -

মৃতার এক আত্মীয়া পারভীনা বিবি বলেন, সুরপালের অবৈধ সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় রোজই মমতাজকে মারধর করত সুরপাল। আজ হাসপাতালে মারা যাবার আগে মমতাজ আমাকে বলে সুরপাল ওর গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে একটা ঘরে বন্ধ করে দেয়। পরে ওই ঘরের জানলা দিয়ে ওর গায়ে জ্বলন্ত দেশলাই কাঠি ছুড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। আমরা মমতাজের প্রতিবেশীদের কাছ থেকে এই দুর্ঘটনার খবর পাই।

মৃতার পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেন, এই ঘটনার সময় সুরপালের মা বাড়িতে থাকলেও তিনি কোনও বাধা দেননি। অভিযোগ, ওই সময় তিনি তার নাতি-নাতনিদের নিয়ে বাড়ি থেকে পালান। মৃতার পরিবারের তরফে ইতিমধ্যে সুরপাল এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। কিন্তু অভিযুক্তরা সকলেই পলাতক।