রাজ্যে র‌্যাশনে এবার চালের বরাদ্দ কমছে

চাঁদকুমার বড়াল, কোচবিহার : আগামী মাস থেকে র‌্যাশনে চালের বরাদ্দ কমাচ্ছে রাজ্য ও কেন্দ্র। রাজ্য সরকারের দাবি, তাদের কাছে ১,০০০ কোটি টাকার গম জমে যাওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অগাস্ট মাসে চালের মাসিক বরাদ্দ কমিয়ে গম দেওয়া হবে গ্রাহকদের। প্রশ্ন উঠছে, উত্তরবঙ্গ সহ গোটা রাজ্যে মানুষের যেখানে মূল খাদ্য ভাত সেখানে কোন যুক্তিতে চালের বরাদ্দ কমানো হচ্ছে। শুধু রাজ্য নয়, কেন্দ্রও তাদের খাদ্য সুরক্ষা যোজনা কার্ডে চালের বরাদ্দ কমিয়ে গম দেবে। রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, অগাস্ট মাস থেকে চাল ও গম মিশিয়ে গ্রাহকদের দেওয়া হবে। মোট বরাদ্দ কমছে না, তবে একজন গ্রাহক যে পরিমাণ চাল পেতেন তা কমিয়ে তার পরিবর্তে গম দেওয়া হবে। তিনি বলেন, শুধু আমরা নয়, কেন্দ্রীয় সরকারও চাল কমিয়ে গম দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রচুর গম আমাদের কাছে জমেছে। এই গম বিলি না হলে নষ্ট হয়ে যাবে।

রাজ্যের হাতে কি চাল কম রয়েছে, তাই গম দেওয়া হবে- এই প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, রাজ্যের হাতে প্রচুর চাল রয়েছে। চালের জোগানের কোনও অভাব নেই। কিন্তু গম নষ্ট হয়ে যাবে। তাই তা দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তাঁর পালটা দাবি, কেন্দ্রের হাতে চাল কম থাকায় তারা এখন চালের পরিবর্তে গ্রাহকদের গম দেবে। এভাবে কেন্দ্র ও রাজ্য একসঙ্গে র‌্যাশনে চালের পরিমাণ কমিয়ে দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এ রাজ্যের মানুষের যেখানে মূল খাবার ভাত সেখানে কোন যুক্তিতে চাল কমিয়ে দেওয়া হবে, এই প্রশ্ন তুলেছেন গ্রাহকরা। মাসদুয়েক আগে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক কেন্দ্রের দেওয়া তড়কার মুগ নিতে চাননি। তখন তাঁর যুক্তি ছিল, কেন্দ্র কিছু মশুর ডাল দিয়ে বাকি তড়কার মুগ দিতে চাইছে। ওই মুগ রাজ্যের মানুষ খায় না। তাহলে এখন কোন যুক্তিতে রাজ্যের মানুষের চাল কমিয়ে তার পরিবর্তে গম দেওয়া হবে?

- Advertisement -

রাজ্য খাদ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যে বিষয়টি নিয়ে একটি নির্দেশ জারি হয়েছে এবং বিভিন্ন গোডাউন থেকে আগামী মাসের জন্য চাল এই দোকানগুলোতে পৌঁছাতে শুরু করেছে। অগাস্ট মাসে চালের পরিবর্তে গম দেওয়া যখন শুরু হবে সেই সময় সমস্যা এবং বিতর্ক দেখা দিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, কেন্দ্রের পিএইচএইচ ও এসপিএইচএইচ কার্ডে গ্রাহকরা লকডাউন পিরিয়ডে প্রতি কার্ডে সাত কেজি করে চাল ও তিন প্যাকেট করে আটা পেয়েছেন। অগাস্ট মাস থেকে তাঁরা চার কেজি করে চাল ও তিন কেজি করে গম এবং তিন প্যাকেট করে আটা প্রতি কার্ডে পাবেন। অন্যদিকে, রাজ্য সরকারের আরকেএসওয়াই-১ কার্ড যাঁদের রয়েছে তাঁরা এতদিন এই লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকে জনপ্রতি পাঁচ কেজি করে চাল পেত সেটা এবার দুকেজি চাল এবং তিন কেজি গম করা হচ্ছে। আরকেএসওয়াই-২ যাঁদের কার্ড রয়েছে তাঁরা বিনামূল্যে প্রতি কার্ডে এক কেজি করে চাল ও এক কেজি করে গম পাবেন।