আর্থিক সমস্যা থাকলেও পুজো হচ্ছে অধিকারী পাড়ায়

182

মেখলিগঞ্জ: অর্থনৈতিক অবস্থা বাঁধা হয়ে দাঁড়ালেও পুজো হচ্ছে অধিকারী পাড়া সর্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটির। পুজো কমিটির তরফে, জানা গিয়েছে মন্ডপ ও মূর্তি এনে পুজোর এবার দ্বিতীয় বছর অনুষ্ঠিত হচ্ছে যদিও তার তিন বছর আগে থেকে ঘট পুজো করা হত।

এবারে পুজোর প্রতিমা তৈরি করছেন মেখলিগঞ্জের মৃৎশিল্পী ক্ষিতীশ ব্যানার্জি। মন্ডপ সজ্জার দায়িত্ব রয়েছে মেখলিগঞ্জ কলোনির এক ডেকোরেটার্স এর হাতে। চলতি বছরে পুজো কমিটির সভাপতি পদে রয়েছেন কেশব চন্দ্র দাস। সম্পাদক পদে রয়েছেন দিলীপ বর্মন।  কোষাধ্যক্ষ পদে রয়েছেন মৃদুল বর্মন।

- Advertisement -

করোনা সচেতনতার বার্তা দিতে পুজো মন্ডপে থাকছে ফ্লেক্স, ফেস্টুন। তাছাড়াও রেকর্ডিং এর মাধ্যমে মাইক যোগে মন্ডপ থেকে করোনা সচেতনতার বার্তা দেওয়া হবে। মন্ডপে দর্শনার্থীদের জন্য থাকছে মাস্ক, স্যানিটাইজার।

কমিটির সম্পাদক দিলীপ বর্মন জানান, কোভিড পরিস্থিতিতে প্রত্যেকেরই অর্থনৈতিক সমস্যা রয়েছে। অধিকারী পাড়া সর্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটির পুজোয় অধিকারী পাড়া ও কালীপাড়ার একটা অংশের মানুষ অংশগ্রহণ করেন। উক্ত অংশের মানুষ আর্থিক দিক থেকে ততটা স্বচ্ছল নয়। তবুও মায়ের পুজোয় সাধ্যমত হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সকলে।

তিনি আরও জানান, যে সব পুজো কমিটির পুজোর অনুমতি রয়েছে তাঁরা সরকারি সাহায্য পেয়েছে। কিন্তু তাদের পুজোর সরকারি অনুমতি না থাকায় তাঁরা সরকারি সাহায্য থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। পুজো কমিটির তরফে, নতুন পুজো কমিটি গুলোকেও সরকারি অনুমতি প্রদানের আবেদন করা হয়েছে।