আমেয়-র জন্য জেতো, লোবেরার পেপটক

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা : শনিবার ফতোরদায় কোনও স্টিভ ওয়া ছিলেন না। থাকলে নিশ্চয় অরিন্দম ভট্টাচার্যকে বলতেন, বন্ধু, বল নয়, তুমি তো কাপটাই গলিয়ে ফেললে।

ম্যাচের শেষ বাঁশি বাজতেই হাঁটু মুড়ে কাঁদতে দেখা গেল এটিকে মোহনবাগান গোলরক্ষককে। শিশুর মতো। বাঙালি গোলকিপারের একটা ভুলেই ম্লান হয়ে গেল আইএসএলে খেতাব জয়ে স্বপ্ন। ভেঙে গেল কত রেকর্ড! ফাইনালে উঠে প্রথমবার খালি হাতে ফিরতে হল দুবারের চ্যাম্পিয়ন অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাসকে। ডেভিড উইলিয়ামস গোল করলে ম্যাচ হারে না তাঁর দল। সেই মিথও ভাঙল প্রথমবার।

- Advertisement -

প্রথমবারের তালিকায় মুম্বই সিটি এফসিও। লিগ উইনার্স শিল্ড জয়ে পাশাপাশি আইএসএল খেতাব। জোড়া ট্রফি জয়ী দল এর আগে পায়নি আইএসএল মঞ্চ। সেই প্রাপ্তিও হয়ে গেল সার্জিও লোবেরার মুম্বইয়ে রূপকথার ফুটবলে। ০-১ পিছিয়ে থেকে ২-১ ম্যাচ জয়। রূপকথা তো বটে!

ম্যাচের পর আবেগ, উচ্ছ্বাসের সুনামিতে ভাসতে ভাসতেই দলের তারকা বার্থোলোমিউ ওগবেচে বলে গেলেন, মুম্বই ইন্ডিয়ান্স আইপিএল চ্যাম্পিয়ন। মুম্বই সিটি এফসি আইএসএল। মুম্বই রুলস দ্য কান্ট্রি।

প্রথমার্ধে আমেয় রানাওয়াড়ের মাথায় মারাত্মক চোটে ছিটকে যাওয়ায় হতবিহ্বল হয়ে পড়েছিলেন হুগো বৌমাসরা। বিরতিতে সাজঘরে ফিরে আমেয়র জন্যই ট্রফি জয়ে বার্তা দিয়েছিলেন লোবেরা। কথা রাখলেন ওগবেচে, বিপিনরা। ট্রফি হাতে আমেয়র জার্সি গায়ে দিয়ে সেলিব্রেশনে মাততে দেখা গেল আহমেদ জাহোউকে। পাশে দাঁড়ানো বৌমাস বলে গেলেন, আমেয় আগের থেকে ভালো আছে। ও ফিরুক। টিম হোটেলে ওকে নিয়ে উৎসব সারব।

টিমগেমের মন্ত্রে এইভাবেই হাবাসের দলকে টেক্কা দিয়ে গেলেন লোবেরা। আইএসএল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরে স্প্যানিশ কোচ বলেন, এই মুহূর্তের অপেক্ষায় ছিলাম। গোটা দল সহ সিটি গ্রুপকে ধন্যবাদ দিতে চাই। এই জয় উৎসর্গ করতে চাই সমর্থকদের। আলাদা করে বিপিন সিংয়ের প্রশংসাও করতে দেখা গেল মুম্বই কোচকে। বললেন, বিপিনের মতো ভারতীয় ফুটবলার এই সাফল্যের আসল কারিগর। দলে প্রতিটি ভারতীয় ফুটবলার নিজেদের যোগ্যতা প্রমণ করেছে। দিনের শেষে এটা টিমেগেমের জয়।

আর ম্যাচের নায়ক বিপিন? লাজুক হেসে বলে গেলেন, উইনিং গোলটা আমার কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবে চিরকাল। ম্যাচের নায়ককে প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন মুম্বই অধিনায়ক অমরিন্দার সিং। বললেন, বিপিন নিজের পরিশ্রমে প্রথম এগারোয় জায়গা করে নিয়েছে। ফাইনালে ওর গোলটা ওর কঠোর পরিশ্রমের পুরস্কার।

মুম্বই শিবির যখন ট্রফি উৎসবে মেতে তখন শ্মশানের নীরবতা সবুজ-মেরুন শিবিরে। টুর্নামেন্ট সেরা হিসেবে গোল্ডেন বল হাতে ফিরছেন কৃষ্ণা। অদূরে অরিন্দম। হাতে গোল্ডেন গ্লাভস। শরীরীভাষায় ভেঙে পড়া স্পষ্ট। যা দেখে ছুটে এলেন হাবাস। জড়িয়ে ধরে সান্ত্বনা দিলেন। আইএসএল মহাকাব্যের ট্র‌্যাজিক নায়ক হিসেবেই থেকে গেলেন ফিজিয়ান ফ্যালকন।