কৃষি নিয়ে তৃণমূল সরকারকে কড়া ভাষায় আক্রমণ অমিত মালব্যের

190

কলকাতা: ফের বাংলার তৃণমূল সরকারকে নিশানা করলেন অমিত মালব্য। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির সহকারী পর্যবেক্ষক ট্যুইট করে লিখেছেন, ‘দেশের কৃষকরা টাকা পেলেও বঞ্চিত থাকবেন বাংলার কৃষকরা। কারণ কৃষকদের তালিকা দেননি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। পিসির ইগোর কারণে দুর্দশা কৃষকদের।’

এদিকে আজ দেশের ৬ রাজ্যের কৃষকদের সঙ্গে কথা বলবেন নরেন্দ্র মোদি। শুনবেন কৃষকদের ‘মন কি বাত’। শুধু তাই নয়, প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্পের আওতাধীন ৯ কোটি কৃষকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১৮ হাজার কোটি টাকা ডিজিটাল-ই পাঠাবেন নরেন্দ্র মোদি। কৃষকদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার।

- Advertisement -

জমি আন্দোলনে ভর করে, ২০১১ সালে বাংলায় পালাবদল ঘটিয়েছিল তৃণমূল! তারপর থেকে ক্ষমতায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এখন আরেক হাইভোল্টেজ বিধানসভা ভোটের মুখে তাঁর মুখে শোনা গেল এই স্লোগান। বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কৃষি আমাদের গৌরব, শিল্প আমাদের সম্পদ।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সিঙ্গুরে আমরা অ্যাগ্রো প্রোডাক্ট ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে। ১১ একর জমিতে গড়ে তোলা হবে। ব্যবসায়ীদের বলছি, যাতে ইন্টারেস্ট পায়, সেজন্য নানা সুযোগ সুবিধা থাকবে। স্টেশন ও ট্রমা কেয়ার ইউনিটের সংলগ্ন জমি।

হুগলির বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন, ২০১১ সালে এসেছিলেন ভাঁওতাবাজি করে। তখন বলেছিলেন কৃষি। জমিতে আজও চাষ হয়নি। ভোটের আগে আবার মিথ্যে কথা। মিথ্যে ছাড়া মমতা কিছু বোঝে না। দলের সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায় বলেন, সিঙ্গুর নিয়ে মমতাকে ভাবতে হবে না।