মাটির প্লেটে ভাত-শুক্তো-পনির, চেটেপুটে খেলেন অমিত শা

1335
ছবি সৌজন্য: বিজেপি

অনলাইন ডেস্ক: বাংলা সফরের দ্বিতীয় দিনেও বাঙালি খানায় মধ্যাহ্নভোজ সারলেন অমিত শা। শুক্রবার নিউটাউনে এক মতুয়া পরিবারের আতিথেয়তা গ্রহণ করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শা। নবীন বিশ্বাসের বাড়িতে রীতিমত মাটিতে বসে কলাপাতায় বাঙালি খাবার খেলেন তিনি। মেনুতে ছিল ভাত, শুক্তো, রুটি, ছোলার ডাল, মুগের ডাল, পনির, বেগুন ভাজা, চাটনি ও নলেন গুড়ের পায়েস।

তাঁর সঙ্গে ছিলেন দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, রাহুল সিনহা, কৈলাস বিজয়বর্গীয় সহ একাধিক হেভিওয়েট নেতা। মাটির থালায় কলাপাতার ওপর খাবার পরিবেশন করা হয়। নবীনবাবুর স্ত্রী তাঁদের জন্য নিজে হাতে রান্না করেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সফর ঘিরে গোটা এলাকায় ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। তবে নবীনবাবুর বাড়ির গলিতে বিজেপির স্থানীয় নেতাদেরও ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

- Advertisement -

নবীনবাবু জানান, তাঁর স্ত্রী তৈরি সব খাবারই খেয়েছেন অমিত শা। নলেন গুড়ের পায়েস ওঁনার খুব পছন্দ হয়েছে। তাঁর মেয়েকে টাকা দিয়ে আশীর্বাদও করেছেন অমিত শা বলে জানান তিনি। এদিন এলাকার হরিচাঁদ মন্দিরেও যান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেখানে পুজো দিয়ে তিনি দুপুরের খাবার খেতে যান। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমন্ত্রণ গ্রহণ করায় আপ্লুত গোটা বিশ্বাস পরিবার।

প্রসঙ্গত এদিন সকালে দক্ষিণেশ্বরের ভবতারিণী মন্দিরে পুজো দিয়ে সেখান থেকে বেড়িয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শা সোজা চলে যান দক্ষিণ কলকাতা টালিগঞ্জের উদয় শংকর সরণিতে। সেখানে পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর সঙ্গে তাঁর সাক্ষাৎ করার কথা আগে থেকেই নির্ধারিত ছিল। সেই মত তিনি পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর সংগীত বিদ্যালয় শ্রুতি নন্দনে গিয়ে হাজির হন।

সেখানে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পৌঁছানোর অনেক আগে থেকেই দলীয়কর্মী সমর্থক এবং সাধারণ মানুষের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মত। অমিত শা সেখানে গিয়ে ২০ মিনিট পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যেমন কথা বলেন, তেমনই অজয় চক্রবর্তীর শিষ্য-শিষ্যাদের নিয়ে রেকর্ড করা ও স্বকণ্ঠে গাওয়া দুটি গানও শোনেন।