করোনা উপসর্গ নিয়ে ঘরে বন্দি বৃদ্ধ দম্পতি, ফেলে পালাল পরিবার

108

মানিকচক: চারদিন ধরে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভুগছিলেন এক বৃদ্ধ দম্পতি। করোনার উপসর্গও রয়েছে দম্পতির শরীরে। কিন্তু তাঁদের সাহায্যে এগিয়ে গেলেন না গ্রামবাসীরা। ঘটনাটি মালদা জেলার মানিকচক ব্লকের কামালপুর গ্রামের। বৃদ্ধা দম্পতিকে ছেড়ে পালিয়েছে তাঁর পরিবার। অবশেষে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক খবর পেয়ে বৃদ্ধ দম্পতির পাশে দাঁড়ালেন এবং চিকিৎসার ব্যবস্থাও করলেন।

জানা গিয়েছে, বিগত সাতদিন আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ওই দম্পতির ছেলে সুরেশ সাহার। তারপর থেকেই জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভুগছিলেন বৃদ্ধ দম্পতি। কিন্তু কেউ এগিয়ে যান নি। পরিবারের সদস্যরাও তাঁদের ছেড়ে অন্যত্র চলে গিয়েছে। তাঁদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকলে এক আশা কর্মীর মাধ্যমে খবর পৌঁছোয় ব্লক স্বাস্থ্যদপ্তরে। এরপর তাঁদের করোনা পরীক্ষা করা হয়। বৃদ্ধার রিপোর্ট পজিটিভ হয়। বৃদ্ধাকে কোভিড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য গ্রামে অ্যাম্বুলেন্স পাঠানো হয়। কিন্তু কেউ বৃদ্ধাকে অ্যাম্বুলেন্সেও তুলে দিতে এগিয়ে যায় নি।

- Advertisement -

অবশেষে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক হেম নারায়ন ঝাঁ গ্রামে পৌঁছে বৃদ্ধাকে নিজের হাতে তুলে উন্নত চিকিৎসার জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠান। বৃদ্ধার স্বামী অসুস্থ অবস্থায় পড়ে রয়েছে ঘরের বারান্দায়। তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট না আসায় তাকে ঘরে রাখা হয়েছে। পরবর্তীতে তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসলে তাঁকেও মালদায় পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক।