কলেজে পড়াবেন রাভা বনবস্তির ছেলে অনন্ত

839

মোস্তাক মোরশেদ হোসেন, রাঙ্গালিবাজনা : মহল্লার বাসিন্দাদের কেউ কৃষক। কেউ দিনমজুর। অনেকের লেখাপড়ার পাট নেই বললেই চলে। বেশিরভাগ মানুষের দারিদ্র‌্য নিত্যসঙ্গী। তবে এবার গর্বে যেন বুক ফুলে উঠেছে মাদারিহাটের খয়েরবাড়ির বনের ভিতরের মহল্লাটির বাসিন্দাদের। ওদের ঘরের ছেলে অনন্ত রাভা এবার কলেজে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের অধ্যাপকের পদে যোগ দিতে চলেছেন। অথচ, ওদের মাতৃভাষা বাংলা নয়। ওদের মাতৃভাষার নাম কোচাক্রৌ। সাধারণের কাছে এই ভাষা রাভা ভাষা নামে পরিচিত। কলেজে এবার স্থায়ীপদের লেকচারার হিসেবে বাংলা পড়াবেন রাভা জনজাতির যুবক অনন্ত রাভা।

ফালাকাটা কলেজ থেকে ২০১০ সালে বাংলা সাহিত্যে অনার্স নিয়ে পাশ করেন অনন্ত। ২০১২ সালে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি পান। এরপর শিক্ষক হওয়ার লক্ষ্যে বিএড করেন । পরবর্তীতে মন দেন গবেষণার কাজে।  এমফিল করার পর প্রবেশিকা পরীক্ষায় পাশ করে পিএইচডি করার কাজে মন দেন। পাশাপাশি, চাকরির পরীক্ষার পড়াশোনা চালিয়ে যেতে থাকেন। ২০১৮ সালে সেট পাশ করেন অনন্ত। ২০১৯ সালে কলেজ সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষা দেন। সম্প্রতি, প্রকাশিত হয়েছে সেই পরীক্ষার ফলাফলের চূড়ান্ত তালিকা। অনন্তর নাম মেধাতালিকায় নাম রয়েছে। এবার অপেক্ষা কলেজের লেকচারার হিসেবে কাজে যোগ দেওযার।

- Advertisement -

অনন্তর বাবা প্রথম রাভা বন দপ্তরে বনশ্রমিকের কাজ করতেন। মা রূগণী রাভা গৃহবধূ। দিদিরা বিবাহিত। অনন্ত বলেন, আগে বাংলা ভাষা যে খুব একটা ভালো লাগত তা নয়। প্রথমে ভূগোল নিয়ে পড়ার ইচ্ছে ছিল। তবে বাংলা সাহিত্যের পরিচয় পেতে আমার চিন্তাভাবনা পালটে যায়। বাংলা ভাষার মাধুর্যের তুলনা হয় না। রাঙ্গালিবাজনার বাসিন্দা তথা দার্জিলিংয়ে সাউথফিল্ড কলেজের লেকচারার ডঃ দীনেশ রায় বলেন, একজন বনবস্তির ছেলেকে এতটা পথ পেরিয়ে আসতে নানা প্রতিকূলতা জয় করতে হয়। অনন্তের সাফল্যে আমরা গর্বিত। অনন্ত এখন গবেষণা করছেন উত্তরবঙ্গের কোচাক্রৌ ভাষা নিয়ে। তিনি বলেন, কোচাক্রৌ আমাদের মাতৃভাষা। সাধারণভাবে ওই ভাষাকে রাভা ভাষা নামে অভিহিত করা হয়। বিশ্বসাহিত্যে বাংলার বিশেষ স্থান রয়েছে। তাই বাংলার হাত ধরেই কোচাক্রৌ ভাষার গভীরে যেতে চাই।

বেলা ঢলে পড়তেই যেন ঝুপ করে সন্ধ্যা নামে রাভাবস্তিতে। ঝিঁঝিঁ পোকার ডাক ভেসে আসে চারদিক থেকে। রাত বাড়লেই মহল্লার চারপাশে ঘুরঘুর করে হাতি সহ নানা বুনো নিশাচর। ওখানেই বেড়ে উঠেছেন অনন্ত রাভা। এবার তাঁর অন্য ইনিংস শুরুর পালা।