বিভিন্ন দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকাদের

636

হলদিবাড়ি: হলদিবাড়ির সিডিপিও-র মাধ্যমে বিভিন্ন দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি পাঠালেন ব্লকের অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকারা। শুক্রবার পুর দপ্তরের সামনে থেকে তাঁরা মিছিল করে হলদিবাড়ি সুসংহত শিশুবিকাশ সেবা দপ্তরের সামনে এসে জমায়েত হয়ে বিক্ষোভ দেখান।

অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীরা জানান, সামান্য পারিশ্রমিকে ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত কাজ করতে হয় তাঁদের। অবসর গ্রহণের পর অনেকেই কর্মক্ষমতা হারান। অথচ সরকারের তরফে তাঁদের আর্থিক সহযোগিতা করা হয় না। অবসর গ্রহণের পর ঘোষিত তিন লক্ষের পরিবর্তে কমপক্ষে পাঁচ লক্ষ টাকা অবসর ভাতা চালু করা, জীবনবিমা চালু, ন্যূনতম বেতন ১০ হাজার টাকা করা, কর্মী ও সহায়িকাদের অবসর গ্রহণের বয়স ৬৫ বছর করা সহ বিভিন্ন দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এদিন চিঠি পাঠানো হয়।

- Advertisement -

ওয়েস্টবেঙ্গল অঙ্গনওয়াড়ি ওয়ার্কার্স অ্যান্ড হেল্পার্স ইউনিয়নের হলদিবাড়ি শাখার তরফে বলা হয়েছে, ‘শিশু, গর্ভবতী ও প্রসূতি মায়েদের পুষ্টি রক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে হয়। শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষাও আমরা দিয়ে থাকি। করোনা পরিস্থিতিতেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আমাদের পরিষেবা দিয়ে যেতে হচ্ছে। অথচ আমাদের সামান্য দৈনিক মজুরি টুকুও দেওয়া হয় না। এদিন আমাদের বিভিন্ন দাবিদাওয়া জানিয়ে একটি স্মারকলিপি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পাঠানো হয়।

হলদিবাড়ির সিডিপিও প্রীতম সাঁতরা বলেন, ‘অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ও সহায়িকাদের দাবিপত্রটি পেয়েছি। সেটি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নজরে আনা হবে।’